মঙ্গল কামনায় বাংলা বর্ষবরণ মঙ্গল কামনায় বাংলা বর্ষবরণ - ajkerparibartan.com
মঙ্গল কামনায় বাংলা বর্ষবরণ

3:06 pm , April 15, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ঢাকে তালে তালে রাখি বন্ধন ও অমঙ্গলকে দুর করে মঙ্গল কামনার মধ্যে দিয়ে নগরীতে বাংলা নববর্ষ বরণ করা হয়েছে। বর্ষবরণের লক্ষ্যে পহেলা বৈশাখ দিনভর আনন্দ উন্মাদনা মেতে ওঠে নগরবাসী। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে বৈশাখ বরণে নেমে আসেন রাজপথে। বৈশাখী উন্মাদনায় সৃষ্টি হয় এক অনাবিল মিলন মেলা। বাঙালি ও গ্রামীন বিভিন্ন ঐতিহ্য নিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা সহ বৈশাখী অনুষ্ঠানে যোগ দেন তারা। এর মধ্যে সর্বপ্রথম সকালে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যান থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। এতে বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস, ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, পুলিশ কমিশনার মো. সাহাবুদ্দিন খান, জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান সহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা অংশ গ্রহন করেন। নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যান (বেলস) পার্ক থেকে বের হওয়া মঙ্গল শোভাযাত্রাটি সার্কিট হাউস চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরবর্তীতে সেখানে অনুষ্ঠিত হয় বর্ষ বরণে নানা অনুষ্ঠান। এছাড়া সকাল ৮টায় বরিশাল চারুকলার উদ্যোগে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে থেকে বের হওয়া শোভাযাত্রাটি নগরীর একাংশের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করেন পুনরায় অশ্বিনী কুমার হলের সামনে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রার অগ্রভাগে মুক্তিযোদ্ধারা জাতীয় পতাকা বহন করেন। এর পর পরই ছিলো ঘোড়সাওয়ার বাহিনী। শোভা যাত্রার শোভা বাড়িয়ে দিয়েছে পালকি, পাখি, কুিমর, হাস, টট্টু ঘোড়া সহ নানা প্রাণীর প্রতিকৃতি। শোভাযাত্রায় প্রতিটি শিশুর হাতে মুকুট, মুখোশ, রাখি ও ফুল তুলে দেয়া হয়। এর আগে সকাল পৌনে ৮টায় নজরুল সাংস্কৃতিক জোট বর্ষ বরণে সূচনা সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এর পর গুণীজন ও মুক্তিযোদ্ধাদের রাখি পাড়িয়ে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়াও চারুকলার উদ্যোগে অশ্বিনী কুমার হল প্রাঙ্গনে লোকজ সংস্কৃতি প্রদর্শন, সঙ্গীত, নৃত্য ও যাত্রাপালা পরিবেশ করে গণশিল্পী সংস্থা, প্রান্তিক, বরিশাল থিয়েটার ও বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যদল।
অপরদিকে সকাল সাড়ে ৬টায় বিএম স্কুল উদ্যানে হয় উদীচী’র ৩৭ তম বর্ষ বরনের প্রভাতী অনুষ্ঠান। সেখানে গুনিজনদের নিয়ে রাখি উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। পরে সকাল সাড়ে ৮টায় বিএম কলেজের সামনে থেকে বের করা হয় বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা। যা নতুন বাজার, বগুরা রোড সহ নগরীর একাংশের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় বিএম স্কুলের সামনে গিয়ে শেষ হয়। বিএম স্কুল মাঠে উদীচী শিল্পিগোষ্ঠীর আয়োজনে তিন দিন ব্যাপী বৈশাখী মেলায় ছিল উপচে ভীর। এদিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্ষবরনে প্রভাতী অনুষ্ঠান ও মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়েছে। সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে মঙ্গলশোভাযাত্রা বের হয়। তাছাড়া বাঙালির ঐতিহ্য লুঙ্গি ও শাড়ি পড়ে শিক্ষার্থীরা বর্ষ বরণের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ নানান কর্মসূচি পালন করেন। তাদের এই আয়োজনে ছিলেন না বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কিংবা তাদের কোন সহযোগিতা।
বিকাল ৪টায় সাংস্কৃতিক সংগঠন শব্দাবলী গ্রুপ থিয়েটারের আয়োজনে তিনদিন ব্যাপী বৈশাখ বরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। তার আগে শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয় ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা। বিকাল সাড়ে ৩টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে অনুষ্ঠিত হবে ঘুড়ি উড়ানোর প্রতিযোগিতা। নগরীর প্লানেট পার্কে তিন দিন ব্যাপী বৈশাখী মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শেষ হবে আজ মঙ্গলবার। তাছাড়া মেরিন ওয়ার্কশপ মাঠে চলমান বানিজ্য মেলার একাংশে তিন দিনের বৈশাখী মেলা হচ্ছে। বানিজ্য মেলায়ও বিশেষ ছাড় দেয়া হয়েছে। অপরদিকে বর্ষ বরণ অনুষ্ঠানকে ঘিরে র‌্যাব, জেলা ও মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা বলয় তৈরী করা হয়েছে। তারা মঙ্গল শোভাযাত্রায় নিরাপত্তা’র ব্যবস্থা থাছাড়াও প্রতিটি বিনোদন কেন্দ্র, বৈশাখী মেলায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। র‌্যাবের বিশেষ চেক পোষ্ট ছাড়াও গোয়েন্দা তৎপরতা রয়েছে বিগত বছর গুলোর তুলনায় অনেক বেশি। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও মাঠ পর্যায়ে নিরাপত্তার বিষয়টি তদারকি করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT