চরফ্যাশনে সাবেক চেয়ারম্যানকে অপহরণ ও ব্লাকমেইলের অভিযোগ চরফ্যাশনে সাবেক চেয়ারম্যানকে অপহরণ ও ব্লাকমেইলের অভিযোগ - ajkerparibartan.com
চরফ্যাশনে সাবেক চেয়ারম্যানকে অপহরণ ও ব্লাকমেইলের অভিযোগ

3:11 pm , December 10, 2018

চরফ্যাশন প্রতিবেদক ॥ চরফ্যাশনের চর মানিকা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইদুল ইসলাম সোহাগকে আপহরণের পর নারীকে ব্যবহার করে ব্লাকমেইলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার রাত ৯টায় মানিকা ফরেষ্ট অফিস সংলগ্ন তিনরাস্তার মোড়ে এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। সাইদুল ইসলাম সোহাগ অভিযোগ করেন, ঘটনার সময় তিনি তিনরাস্তার মোড়ে দাড়িয়েমোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। এসময় বাদল মীর, ফজলু মীর এবং ভুট্রু মীর ঘটনাস্থলে এসে অস্ত্র ঠেকিয়ে চোখ-মুখ বেঁধে একটি ঘরের মধ্যে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে জনৈক নারীর সাথে বিবস্ত্র করে তার ছবি ও ভিডিও করা হয়। পরে তাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় পাশের একটি খোলা মাঠে নেয়া হয়। খোলা মাঠে নিয়ে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করা হয়। মুক্তিপণ নিয়ে দেন-দরবারের সময় সোহাগের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। সাইদুল ইসলাম সোহাগ মানিকা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এবং বাদল মীর মানিকা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার। সোহাগ অভিযোগ করেন, সাইদুল ইসলাম সোহাগের ফুফাতো ভাই জসিম মীরের সাথে বাদল মীরগংদের জমি জমা নিয়ে বিরোধ চলছে। ওই বিরোধ নিষ্পত্তির সালিশদার ছিলেন সোহাগ। সোহাগ জসিম মীরের পক্ষে রায় প্রদান করায় বাদল মীরগংরা তার উপর প্রতিশোধ নিতে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বলে সোহাগ অভিযোগ করেন। অবশ্য বাদল মীর এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, যুবতীকে ভাড়া এনে অপকর্ম করতে গিয়ে সোহাগ ফেঁসে গেছেন। নিজের অপরাধ চাপা দিতে সোহাগ আমাদের উপর অপহরণের মিথ্যা অভিযোগ তুলছে। দক্ষিণ আইচা থানার অফিসার ইন চার্জ মাসুম তালুকদার বলেন,এই ঘটনায় কোন মামলা বা অভিযোগ করা হয়নি। তবে সাইদুল ইসলাম সোহাগ জানান, থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT