স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে এক বাবুর্চিকে শাস্তিমূলক বদলী ॥ নজরদারীতে আরো কয়েকজন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে এক বাবুর্চিকে শাস্তিমূলক বদলী ॥ নজরদারীতে আরো কয়েকজন - ajkerparibartan.com
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভিযানে এক বাবুর্চিকে শাস্তিমূলক বদলী ॥ নজরদারীতে আরো কয়েকজন

3:09 pm , November 17, 2022

শেবাচিম হাসপাতালের পথ্য বিভাগে দূর্নীতি ॥ অসহায় পণ্য সরবরাহকারী ঠিকাদার

হেলাল উদ্দিন ॥ বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে দূর্নীতির অন্যতম প্রধান আতুর ঘর পথ্য বিভাগ বা ডায়েট শাখা। হাসপাতালের হাজারো রোগীর খাবারের বিষয়টি এই বিভাগের অন্তরভুক্ত। অর্থ্যাৎ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় পন্য সামগ্রী বুঝে পাওয়ার পর রোগীদের মুখে খাবার তুলে দেয়া পর্যন্ত সব কর্ম করে থাকে এই বিভাগটিতে কর্মরতরা। তথ্য অনুযায়ী বিভাগীয় এ হাসপাতালটির পথ্য বিভাগে অন্তত ২০ জন কর্মী কর্মরত থাকে। যাদের এক কথায় বাবুর্চি বলা হলেও সবাই রান্নার কাজ করেন না। দায়িত্ব ভাগ ভাগ করে আনুসঙ্গিক অন্যান্য কাজ করে থাকেন তারা। রোগীদের খাবারে দূর্নীতির প্রথম পর্বটি শুরু হয় এই পথ্য বিভাগ থেকে। অভিযোগ রয়েছে রোগীদের খাবারের জন্য দৈনিক যে যে পন্য সামগ্রী বরাদ্ধ থাকে বা সরবরাহ করা হয় তা পথ্য বিভাগে পৌছা মাত্রই এক ধরনের হরিলুট ও ভাগবাটোয়া শুরু করে দেন বাবুর্চিরা। এখানে পণ্য সরবরাহ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানও অনেকটা অসহায়। কথিত রয়েছে দৈনিক বরাদ্ধের এক তৃতীয়াংশই চলে যায় বাবুর্চিদের পেটে। বাবুর্চিরা রোগীর খাবার নিজেরা খায় এবং আত্মীয়-স্বজনদের এনে দাওয়াত খাওয়ানোর মতো করে তাদেরও খাওয়া। এছাড়া বরাদ্দের একটি অংশ প্রতিদিন রোগীদের কাছেই বিক্রি করা হয়। দীর্ঘ বছর ধরে এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলেও অনেকটা অপ্রতিরোধ্য ভাবে চলতে থাকে বাবুর্চিদের রোগীদের খাবার হরিলুটের কর্ম। হাসপাতাল প্রশাসন এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহনের কোন নজিরও স্থাপন করতে পারেনি। যে কারনে পথ্য নয় হরিলুটের বিভাগে পরিনত হয়েছে শেবাচিম হাসপাতালের পথ্য বিভাগ।
তবে এই অনিয়ম দূর্নীতির রাজ্যে অবশেষে হানা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। প্রথম আলামত স্বরুপ পথ্য বিভাগের একজন বাবুর্চিকে বদলী করা হয়েছে। মোঃ ফারুক নামের ওই বাবুর্চিকে কুমিল্লার মুরাদ নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলী করা হয়েছে। অধিদপ্তরের পরিচালক প্রশাসন ডাঃ মোঃ সামিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত ওই বদলী আদেশ প্রদান করা হয় ১৬ নভেম্বর। আদেশে বলা হয়েছে বদলীকৃতদেরকে আদেশ জারির ৪ কর্ম দিবসের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে। অন্যথায় পঞ্চম কর্ম দিবস থেকে স্ট্যান্ড রিলিজ বলে গন্য হবেন।
এদিকে বাবুর্চিও শাস্তিমূলক বদলীর খবরটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য তার সহযোগীরা প্রচার করছে ফারুক নিজেই বদলীর আবেদন করে কুমিল্লা গেছেন। হাসপাতালের ডায়েটিশিয়ান জাকের হোসেন বলেন আমি যতদূর জানি ফারুকের বাড়ী কুমিল্লায়। সে দীর্ঘদিন ধরে নিজ জেলায় যাওয়ার চেষ্ঠা করে আসছিলো।
জানতে চাইলে হাসপাতাল পরিচালক ডাঃ এইচ এম সাইফুল ইসলাম বলেন ফারুকের বিরুদ্ধে একাধিক বার দূর্নীতির অভিযোগ আমার কাছে এসেছে। আমি বিষয়টি অধিদপ্তরকে অবহিত করেছি ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য। আমার জানা মতে সে কোন বদলির আবেদন করেনি। তিনি বলেন শুধু ফারুক নয় হাসপাতালের সকল সেক্টরে দূর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। এজন্য হাসপাতাল প্রশাসনের টিম ও গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এ ব্যবস্থা গ্রহন করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। মূলত এটা পূর্ব সংকেত। আগামীতে এধরনের ব্যবস্থা নিয়মিত গ্রহন করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT