আগামী সপ্তাহ থেকে কাজ শুরু হবে ॥ ভোগান্তি কমবে রোগীদের আগামী সপ্তাহ থেকে কাজ শুরু হবে ॥ ভোগান্তি কমবে রোগীদের - ajkerparibartan.com
আগামী সপ্তাহ থেকে কাজ শুরু হবে ॥ ভোগান্তি কমবে রোগীদের

3:33 pm , September 8, 2022

শেবাচিমের সিটি স্ক্যান ও এনজিওগ্রাম সচল

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিভিন্ন জটিলতা ও সংকটে জর্জরিত দক্ষিণাঞ্চলের সর্ববৃহৎ চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠান বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটিতে অবশেষে দুটি সংকটের অবসান হয়েছে। দীর্ঘ ৪ বছর পর আবার চালু হচ্ছে সিটি স্ক্যান পরীক্ষা এবং সচল করা হয়েছে এনজিও গ্রাম মেশিন। ফলে হৃদরোগে আক্রান্তদের জন্য সুখবর বয়ে এনেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘ দুই বছরেরও বেশী সময় ধরে হাসপাতালটিতে ইকো এনজিওগ্রাম ও হার্টে রিং বসানো কার্যক্রম বন্ধ ছিলো। যে কারনে সামান্য সমস্যা নিয়েও ঢাকা যেতে হয়েছে বরিশালসহ দক্ষিনাঞ্চলের মানুষের। হাসপাতালের অকেজো ও অচল মেশিনগুলো সচল করার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে যোগাযোগ রক্ষা করে আসছিলেন হাসপাতাল পরিচালক ডাঃ এইচ এম সাইফুল ইসলাম। শেষ পর্যন্ত অন্তত এই দুটি মেশিন সচল হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন তিনি। ডা. সাইফুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে বিষয়টি নিয়ে গণপূর্ত ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে যোগাযোগ করতে ছিলাম। গত কয়েক দিন আগে ঢাকা থেকে একটি টিম এসে সিটি স্ক্যান ও এনজিওগ্রাম মেশিন সচল করেছে। এখন মেশিন দুইটি সম্পূর্ন ব্যবহার উপযোগী। টুকটাক কিছু কাজ বাকী আছে। সেগুলো শেষ করে আগামী সপ্তাহে উভয় মেশিন দুটি দিয়ে পরীক্ষা শুরু হবে।
হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এম সালেহ উদ্দীন বলেন, মেশিন রিপেয়ারিং করা হয়েছে। এখন সম্পূর্ন ঠিক আছে। তারপরও পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজ না করে এখনই আমরা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রত্যায়ন দিচ্ছি না। তিনি বলেন, মূল মেশিন সচল হলেও এনজিগ্রাম থেকে শুরু করে হার্টে রিং বসানো পর্যন্ত কিছু নন মেজর ইলিমেন্টের ঘাটতি রয়েছে। আশা করছি সপ্তাহ খানেকের মধ্যে তাও পেয়ে যাব। আমাদের প্রত্যাশা আগামী সপ্তাহে পুরো কার্যক্রম শুরু করতে পারব।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT