স্বরূপকাঠিতে এ্যপ্রোচ সড়ক না করায় কাজে আসছেনা ৫ কোটি টাকার ব্রিজ স্বরূপকাঠিতে এ্যপ্রোচ সড়ক না করায় কাজে আসছেনা ৫ কোটি টাকার ব্রিজ - ajkerparibartan.com
স্বরূপকাঠিতে এ্যপ্রোচ সড়ক না করায় কাজে আসছেনা ৫ কোটি টাকার ব্রিজ

3:24 pm , August 30, 2022

স্বরূপকাঠি প্রতিবেদক ॥ স্বরূপকাঠির সুটিয়াকাঠিতে এ্যাপ্রোচ সড়কের অভাবে জনগনের কাজে আসছে না পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মান করা গার্ডার ব্রিজ। সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের তারাবুনিয়া খালের ওপর নির্মান করা ওই ব্রিজের দুই পাড়ের এ্যাপ্রোচ সড়কের জন্য জমি অধিগ্রহন না করায় অ্যাপ্রোচ ও রাস্তা নির্মানের সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। প্রায় ছয় মাস আগে ব্রিজ নির্মানের কাজ সম্পন্ন হলেও খালের দুই পাড়ের জমির মালিকরা এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মান করতে দিচ্ছেন না। এদিকে ওই ব্রিজের পার্শ্বে থাকা পুরোনো আয়রণ ব্রিজটি গত সপ্তাহে ট্রলারের ধাক্কায় ভেঙে পড়লে যানবাহন চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। পুরোনো ব্রিজ ভেঙে যাওয়ার পর থেকে ছোট ছোট শিক্ষার্থী সহ শত শত মানুষ খেয়া নৌকায় ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে।
সরেজমিন জানাগেছে ইন্দুরহাট মিয়ারহাট বন্দর থেকে নান্দুহার বাজার হয়ে বানারীপাড়া অঞ্চলে যাতায়াতের জন্য গুরুত্ব পূর্ণ ওই সড়কের তারাবুনিয়া খালের ওপর চার কোটি ৮৪ লাখ ৫৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ৪৬ মিটার গার্ডার ব্রিজটি নির্মান করেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ। মেসার্স এমএম বিল্ডার্স ও মেসার্স আমির ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন যৌথভাবে ব্রিজটি নির্মান করলেও এ্যাপ্রোচ সড়কের কাজ ফেলে রেখেছে। ওই এলাকার বাসিন্দা স্বরূপকাঠি উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক বলেন, পুরোনো ব্রিজের পার্শ্বে নতুন ব্রিজ করতে গিয়ে এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মানের সমস্যা দেখা দিয়েছে। ওইসব জমির মালিকরা অত্যন্ত দরিদ্র এবং তাদের সামান্য জমিতে ঘর। তাদের ঘর সরানোরও কোন উপায় নেই। তাদের সামান্য ভূমি রাস্তায় চলে গেলে তাদের বসবাসের জায়গা থাকবে না। সুতরাং জমির মালিকদের ক্ষতিপুরণ দিয়েই এ্যাপ্রোচ সড়ক করতে হবে। সুটিয়াকাঠি ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন অসিম বলেন, পুরোনো আয়রণ ব্রিজটি একটি ট্রলার রাতের আঁধারে ভেঙে ফেলার পরে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং বাধ্য হয়ে মানুষের চলাচলের জন্য খেয়ার ব্যবস্তা করা হয়েছে।
মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে এ্যপ্রোচ সড়ক নির্মানে কি উদ্যোগ নিচ্ছেন জানতে চাইলে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী শেখ তৌফিক আজিজ বলেন, সমস্যার কথা উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি এবং নির্বাহী প্রকৌশলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছেন। শিগ্রই এ্যপ্রোচ নির্মান করতে পাবেন বলে জানান উপজেলা প্রকৌশলী।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT