পুলিশকে সম্মান করি ॥ জনগণের টাকায় কেনা অস্ত্র জনগণের বুকে ঠেকানোর আগে চিন্তা করুন -গয়েশ্বর পুলিশকে সম্মান করি ॥ জনগণের টাকায় কেনা অস্ত্র জনগণের বুকে ঠেকানোর আগে চিন্তা করুন -গয়েশ্বর - ajkerparibartan.com
পুলিশকে সম্মান করি ॥ জনগণের টাকায় কেনা অস্ত্র জনগণের বুকে ঠেকানোর আগে চিন্তা করুন -গয়েশ্বর

3:45 pm , August 4, 2022

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ পুলিশ তুমি পোশাক খোলো, মুজিব কোট গায়ে তোলো শ্লোগান নিয়ে মাউথ পিস হাতে তুলে নিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। বৃহস্পতিবার মহানগর ও জেলা বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আরো বলেন, পুলিশ তুমি পোশাক খোলো, মুজিব কোট গায়ে পড় – এ শ্লোগান শুনতে কি আপনাদের ভালো লাগে? এ শ্লোগান শুধু মুজিববাদী পুলিশের জন্য। সকলের জন্য নয়। আমরা পুলিশকে সম্মান করি। জনগণের টাকায় কেনা অস্ত্র জনগণের বুকে ঠেকানোর আগে একটু চিন্তা করুন। আপনাদের প্রতি সম্মান নষ্ট করে দেবেন না। ভোলার প্রতিবাদ মিছিলে গুলি চালিয়ে রহিম ও নূর আলমকে হত্যা করায় রাজপথেই এখন এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে মোকাবেলা করার ঘোষণা দেন তিনি। বিদ্যুৎখাতে দুর্নীতি বিরোধী বিক্ষোভে নিহত ভোলার স্বেচ্ছাসেবক দলনেতা আব্দুর রহিম ও ছাত্রদলের সভাপতি নূরে আলম হত্যা ও শতাধিক নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ ঘটনার প্রতিবাদে বরিশাল বিভাগের বিএনপি নেতাকর্মীরা প্রায় সবাই জড়ো হন বিএনপি কার্যালয়ের সামনে। ফলে টাউন হল প্রাঙ্গণে বিএনপির কার্যালয় থেকে নেতাকর্মীদের ভিড় সদর রোড ছাড়িয়ে যায়। পুলিশ ও র‌্যাবের পাহারার মধ্যেই শান্তিপূর্ণ এই জনসভা বিশাল জনস্রোতে রূপ নেয়। মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুক এর সভাপতিত্বে এ সমাবেশের প্রধান অতিথি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আরো বলেন, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান নিজের জন্য ভোট চান নাই। আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব। এই ফ্যাসিস্ট সরকার মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। তারেক রহমান সেই ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে রাজপথেই এই সরকারকে মোকাবেলার ঘোষণা দিয়েছেন। সরকার শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা দিয়ে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ নয়, জনগণের সাথে বিদ্রুপ করছে বলে প্রতিবাদ জানান গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।
জনসভার প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম তখন ভোলায় নূর আলমের লাশ নিয়ে কবরস্থানে আছেন জানিয়ে মিডিয়া সেলের সমন্বয়ক জহির উদ্দিন স্বপন তার পক্ষে সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন।
এর আগে বিশেষ অতিথির ভাষনে কেন্দ্রীয় সহসভাপতি শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ২০০৮ সালে সরকার শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা দেন। সারাদেশে শতভাগ সাফল্য অর্জন করেছেন। এখন বিদ্যুৎ নাই। তেল গ্যাস নিত্য পণ্যের দাম বেড়েই চলছে। এর প্রতিবাদ করা কি অন্যায়? তাহলে আপনি কেন গুলি চালালেন? আপনি যখন পিতা ভাই হত্যার শোকে কান্না করেন, তখন আমাদেরও খারাপ লাগে। আমাদেরও কষ্ট হয়। নুর আলমের ছোট্ট শিশু কন্যাটি যখন প্রশ্ন করে বাবা কই? বলেই কান্নায় ভেঙে পড়েন শামসুজ্জামান দুদু।
এই জনসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সহসভাপতি এডভোকেট জয়নাল আবেদীন, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমান, মাহবুবুল হক নান্নু, মুজিবুর রহমান নান্টু সহ জেলা উপজেলা নেতৃবৃন্দ।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT