বিআরটিসির বাসের চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে মামলা ॥ ইজারাদারের সাথে চুক্তি বাতিল বিআরটিসির বাসের চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে মামলা ॥ ইজারাদারের সাথে চুক্তি বাতিল - ajkerparibartan.com
বিআরটিসির বাসের চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে মামলা ॥ ইজারাদারের সাথে চুক্তি বাতিল

3:54 pm , July 21, 2022

পলাশ হাওলাদার, বাকেরগঞ্জ ॥ বাকেরগঞ্জের বিআরটিসির বাসে চাপায় ৬ যাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাকেরগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন নিহত অটোরিক্সার যাত্রী আমির হোসেন চৌধুরীর ছেলে জুবায়েদ ইসলাম।
মামলায় বিআরটিসি বাসে ( কুমিল্লা ব ১১-০০৫৫) চালক ও হেলপারকে আসামী করা হয়েছে। তারা হলো গৌরনদীর কাসেমাবাদ এলাকার বাসিন্দা চালক জাহাঙ্গীর ও হেলপার বরিশাল নগরীর টিয়াখালী এলাকার নান্না মিয়ার ছেলে সাইদুল।
এদিকে বিআরটিসি বাসের ইজারাদারের চুক্তি বাতিল করা হয়েছে। বিআরটিসির পক্ষ থেকে নিহদের পরিবারকে অনুদান দেয়া হয়েছে।
বাকেরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সত্যরঞ্জন খাসকেল জানান, মামলায় আসামীদের বিরুদ্ধে বেপরোয়া গতিতে চালনা করিয়া মৃত্যু ঘটানো ও গুরুতর আহত করার অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে। বাস পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।
মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, যাত্রীবাহী অটোরিক্সায় তার বাবাসহ ৬ যাত্রী বাকেরগঞ্জের ভরপাশা রুইতার পোলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। বরিশাল-পটুয়াখালী সড়কের বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড ফায়ার সার্ভিস অফিসের সামনে পৌছুলে বাসের চালক দ্রুত গতিতে চালাইয়া ও হেলপারের অসর্তকতার কারনে অটোরিক্সাকে চাপা দেয়। এতে অটোরিক্সার ৬ যাত্রী নিহত হয়েছে। এছাড়াও আহত অবস্থায় আরো একজন চিকিৎসাধীন রয়েছে।
নিহতরা হলেন- বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সোবাহান চৌধুরীর ছেলে আমির চৌধুরী, রফিক খানের ছেলে হাসিব খান (২২), বারেক সিকদারের ছেলে সোহাগ সিকদার (২৮), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ভুবন এলাকার মো. নাসিরের স্ত্রী তানজিলা (৩০) এবং বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার মো. ফয়সালের স্ত্রী সাথী বেগম (২২) ও তাদের শিশু কন্যা ফারহানা (০৪)। আহত অবস্থায় শিশুর বাবা মো. ফয়সাল বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে বুধবার রাতে বিআরটিসির কর্তৃপক্ষ নিহতদের দাফন-কাফন সম্পন্নের জন্য ২০ হাজার টাকা করে অর্থ সহায়তা দিয়েছে। বরিশাল ডিপোর ব্যবস্থাপক (অপারেশন) মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিআরটিসির চেয়ারম্যানের নির্দেশনায় প্রত্যেক পরিবারকে ২০ হাজার করে মোট ১ লাখ ২০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়েছে।
ব্যবস্থাপক আরো জানান, দুর্ঘটনা কবলিত বাস দীর্ঘ মেয়াদী ইজারা দেয়া হয়েছিলো। চাঁদপুর জেলার বাসিন্দা মো. গিয়াসউদ্দিনকে এ বাসটি ইজারা দেয়া হয়। এর চালক ও হেলপার এবং বাসের রক্ষনাবেক্ষনের দায় ইজারাদারের। এ দুর্ঘটনার পর তার সাথে ইজারার চুক্তি বাতিল করা হয়েছে বলে ডিপো ব্যবস্থাপক জানিয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT