নৌ-বন্দরের ৩ কর্মচারী বরখাস্ত বন্দর কর্মকর্তা স্ট্যান্ড রিলিজ নৌ-বন্দরের ৩ কর্মচারী বরখাস্ত বন্দর কর্মকর্তা স্ট্যান্ড রিলিজ - ajkerparibartan.com
নৌ-বন্দরের ৩ কর্মচারী বরখাস্ত বন্দর কর্মকর্তা স্ট্যান্ড রিলিজ

3:34 pm , July 3, 2022

টিকিট বিক্রিতে অনিয়ম ও অর্থ আত্মসাত

হেলাল উদ্দিন ॥ দর্শনার্থী টিকিট বিক্রিতে অনিয়ম ও অর্থ আতœসাতের দায়ে বরিশাল নদী বন্দরের ৩ কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানকে। ঢাকার বিআইডব্লিউটিএ এর দায়িত্বশীল একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বরিশাল বন্দর অফিসে কর্মরত সব কর্মচারীকে বদলীর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আজ (রবিবার) সন্ধ্যার মধ্যে আরো অন্তত ১৫ জনের বদলী আদেশ জারী হবে। ঢাকার বিআইডব্লিউটিএ এর দুজন উপ পরিচালক এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান স্ট্যান্ড রিলিজের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
সাময়িক বরখাস্তকৃতরা হলেন শুল্ক আদায়কারী মো. ফারুক সর্দার, মাসুদ হোসেন খান ও মো. মনির হোসেন। শনিবার এক অফিস আদেশে বলা হয় দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ ওঠায় তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
ঢাকার বিআইডব্লিউটিএ এর উপ পরিচালক (সংস্থাপন) আবদুর রাজ্জাক বলেন, দুদকের অভিযানের পর অভ্যন্তরীন তদন্তে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় ৩ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আরো কিছু বিষয় প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
উপ পরিচালক শাহজাহান সিরাজ বলেন, এক আদেশে ৫ জন উপ পরিচালক পদ মর্যাদার কর্মকর্তাকে বদলী করা হয়েছে। তার মধ্যে বরিশাল পোর্ট অফিসারও রয়েছেন। আমি এটাকে স্বাভাবিক বদলী বলব।
তবে বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্মা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমি বদলী আদেশ হাতে পেয়েছি। এটা স্ট্যান্ট রিলিজ বা শাস্তিমূলক বদলী।
বিআইডব্লিটিএ এর প্রশাসন ও মানবসম্পদ বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ আবু জাফর হাওলাদার স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে বলা হয়েছে আদেশ হাতে পাওয়ার পর পরই নিজ কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষনিক অবমুক্ত হয়েছেন মর্মে গন্য হবেন। তিনি বলেন চিঠি পাওয়ার সাথে সাথে বদলী কার্যকর হয়েছে। এখন শুধু দায়িত্ব বুঝিয়ে দেওয়ার বাকি আছে।
বিআইডব্লিউটিএর বন্দর ও পরিবহন বিভাগের পরিচালক ওয়াকিল নেওয়াজ বলেন, এ ঘটনায় আরও শুল্ক আদায়কারী আরো চারজনকে জনকে বদলি করা হয়েছে। সোমবার সকল শুল্করক্ষীকে বদলি করা হবে। মোট কথা টিকিট জালিয়াতির ঘটনায় বন্দরের সবাইকে বদলি করা হবে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বন্দরের একাধিক কর্মকর্তা বলেন বরিশাল নদী বন্দরে সব মিলিয়ে ২৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে। ইতিমধ্যে ৩ জন বরখাস্ত ও একজনকে বদলী করা হয়েছে। বাকি ২০ জনের মধ্যে ১৫ জনকে বদলীর প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে রয়েছে। মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনা রয়েছে বরিশাল নদী বন্দরের সবাইকে বদলী করে দেওয়ার।
প্রসঙ্গত, বরিশাল নদী বন্দরে টিকিট বিক্রির অনিয়ম দূর্নীতি ধরতে গত ২৮ জুন বরিশাল নদী বন্দরে অভিযান চালায় বরিশাল দুদকের একটি দল। অভিযানে নদী বন্দরের ২ নম্বর কাউন্টারে বিক্রি করা ৮৬৩টি টিকেট ড্রয়ার ও ঝুলিয়ে রাখা ব্যাগ থেকে জব্দ করা হয়।
অভিযোগ আছে, ওইসব টিকেট যাত্রীদের কাছে ফের বিক্রি করার জন্য রাখা হয়েছিল। অন্যদিকে, এক নম্বর কাউন্টারে বিক্রি হওয়া টিকেটের দামের চেয়ে বেশি টাকা পাওয়া যায়। একই টিকেট একাধিকবার বিক্রি করায় বাড়তি টাকা আদায় করা হয়েছে বলে দুদক কর্মকর্তাদের ধারনা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT