৯ ইউনিয়নে ভোটের আমেজ ৯ ইউনিয়নে ভোটের আমেজ - ajkerparibartan.com
৯ ইউনিয়নে ভোটের আমেজ

3:08 pm , May 13, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ তিনটি উপজেলার নয়টি ইউনিয়নে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। ওই নয়টি ইউনিয়নের ভোটকে কেন্দ্র করে সরব হয়ে উঠেছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ইতোমধ্যে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের স্থানীয় মনোনয়ন বোর্ডের নেতৃবৃন্দরা। আগামী ১৫ জুন মেহেন্দিগঞ্জ ও হিজলা উপজেলার আটটি এবং উজিরপুর উপজেলার একটি ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ করা হবে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিতরা মাঠে থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন। অপরদিকে বিএনপিসহ অন্য সবদল এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে কিনা তা নিয়ে এখনও শঙ্কা কাটেনি। মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম বলেন, উপজেলায় আন্ধারমানিক, বিদ্যানন্দপুর, লতা, জয়নগর, চরএককরিয়া এবং গোবিন্দপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে আগামী ১৭ মে পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম জমা দেওয়ার শেষ সময়।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্যমতে, একইদিন হিজলা উপজেলার ধুলখোলা ও হিজলা-গৌরবদী ইউনিয়নে এবং উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ করা হবে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানার চারটি ইউনিয়নে ভোটের আমেজ সবচেয়ে বেশি। স্থানীয় জেলা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড আন্ধারমানিক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নের সুপারিশ করেছে আলাউদ্দিন কবিরাজকে। ফলে এ ইউনিয়নের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান কাজী শহিদুল ইসলাম মনোনয়ন পাচ্ছেন না। গত নির্বাচনে তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে বিজয়ী হয়েছিলেন। এবারও তিনি (শহিদুল) ভোটে অংশগ্রহণ করবেন।
বিদ্যানন্দপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন জব্বার খান। এ ইউনিয়নেও সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল মিয়া মনোনয়ন বঞ্চিত হলেও তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। লতা ইউনিয়নের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান নেহালকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রস্তাব রেখেছে। ফলে ওই ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ভোটের মাঠে থাকছেন আবু রাশেদ মনির। জয়নগর ইউনিয়নে নৌকার টিকিট পাচ্ছেন সেকেন্দার আলী আবু জাফর। মনোনয়ন বঞ্চিত সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান মনির হোসেন হাওলাদার গত নির্বাচনের ন্যায় এবারও বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ভোটের মাঠে থাকছেন। চরএককরিয়া ইউনিয়নে এবারও চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দলের মনোনয়ন পাচ্ছেন মকিম তালুকদার। তার প্রতিদ্বন্ধী হিসেবে মাঠে রয়েছেন আবু হোসেন হাওলাদার ও রুহুল আমিন পলাশ। গবিন্দপুর ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন পাচ্ছেন বেল্লাল মোল্লা। তবে স্থানীয় সাংসদের অনুসারী সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন তালুকদার বলেন, বেল্লাল মোল্লা হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি। তার ভাইও পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। এরপরেও কী করে তিনি (বেল্লাল) মনোনয়ন পান, তা প্রশ্নবিদ্ধ। তবে তিনি (মহিউদ্দিন) প্রার্থী হবেন বলেও জানিয়েছেন।
অপরদিকে হিজলা উপজেলার ধুলখোলা ইউনিয়নে মাওলানা জসিম উদ্দিন এবং হিজলা-গৌরবদী ইউনিয়নে নজরুল ইসলাম মিলন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন। তবে ওই দুটি ইউনিয়নেই আওয়ামী লীগের শক্ত বিদ্রোহী প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী রয়েছেন। উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হচ্ছেন নজরুল মাঝি। ওই ইউনিয়নেও দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার আভাস পাওয়া গেছে।
এ ব্যাপারে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস বলেন, স্থানীয় মনোনয়ন বোর্ড প্রাথমিকভাবে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছেন। বিএনপিসহ অন্য দলের নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে তিনি বলেন, কে নির্বাচন করল, আর কে না করলো, তাতে আমাদের কি আসে যায়। বিদ্রোহী প্রার্থী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT