গৌরনদীতে চিকিৎক স্ত্রীর যৌতুক মামলায় চিকিৎসক স্বামী জেলে গৌরনদীতে চিকিৎক স্ত্রীর যৌতুক মামলায় চিকিৎসক স্বামী জেলে - ajkerparibartan.com
গৌরনদীতে চিকিৎক স্ত্রীর যৌতুক মামলায় চিকিৎসক স্বামী জেলে

3:34 pm , April 13, 2022

গৌরনদী প্রতিবেদক ॥ গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক স্ত্রীকে যৌতুকের দাবীতে মারধরের অভিযোগে করা মামলার আসামী একই কর্মক্ষেত্রের চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দিনগত গভীর রাতে চিকিৎসক টিপু সুলতানকে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ডা. টিপু সুলতান গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ও উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের নলচিড়া গ্রামের বাসিন্দা মো. বাদশা ফকিরের ছেলে। তার স্ত্রী একই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎক মিলাদুজ জাহান ইরা (৩১) গত মঙ্গলবার রাতে গৌরনদী মডেল থানা মামলা করে। মামলায় চিকিৎসক স্বামী ছাড়াও শ্বশুড় বাদশা ফকিরকেও আসামী করা হয়েছে। ইরা কুমিল্লা সদরের আব্দুল আলীমের কন্যা।
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ইরা ও টিপু ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পড়াশোনা করে। সেখানে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। ২০২১ সালে উভয়ে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক হিসেবে যোগদান করেন। ৮ মাস পূর্বে পারিবারিকভাবে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের পরে ২/৩ মাস পরেই তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়।
চিকিৎসক স্ত্রীর মামলায় আরো উল্লেখ করেন, চিকিৎসক স্বামী টিপু তার কাছে ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করায় দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। এক পর্যায়ে শারীরিক নির্যাতর শুরু করে। গত ৩ এপ্রিল গৌরনদী সদরের একটি ক্লিনিকের ল্যাবে কাজ করা অবস্থায় পিটিয়ে আহত করেছে। পরের দিন তাকে শ্বশুড় বাড়ি নলচিড়া গ্রামে নিয়ে অমানবিক নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে তাকে বাড়িতে আটকে রাখে। মঙ্গলবার কৌশলে বাড়ি থেকে পালিয়ে এসে গৌরনদী মডেল থানাকে বিষয়টি অবহিত করেন।
টিপুর বাবা মোঃ বাদশা ফকির বলেন, পড়াশোনা অবস্থায় দুজনে দুজনকে ভালবেসে বিয়ে করেছে। যা উভয়ের পরিবার মেনে নিয়েছি। টিপুকে বদলি হয়ে কুমিল্লায় যাওয়া এবং পরিবার থেকে আলাদা হওয়ার প্রস্তাব দেয় পুত্রবধূ ইরা। প্রস্তাব মানতে রাজি না হওয়ায় মিথ্যা যৌতুক মামলা দিয়ে ছেলেকে হয়রানি করছে।
এ ব্যাপারে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাইয়্যেদ মোহাম্মদ আমরুল্লাহ বলেন, ডা. ইরা লিখিতভাবে জানিয়েছে তার স্বামী টিপু সুলতান যৌতুকের দাবিতে গত মঙ্গলবার গলায় রশি পেচিয়ে ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে বেদমভাবে পিটিয়ে জখম করেছে। অভিযোগ পাওয়ার পরে বিষয়টি সিভিল সার্জনকে অবহিত করেছি।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. আফজাল হোসেন বলেন, যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের অভিযোগে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ মিলাদুজ জাহান বাদি হয়ে স্বামী একই প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসক ডাঃ টিপু সুলতানের বিরুদ্ধে যৌতুক নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ মঙ্গলবার গভীর রাতে ডা. টিপু সুলতানকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার আদালতের মাধ্যমে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT