বাকেরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে দুই কিশোরকে পেটানোর অভিযোগ বাকেরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে দুই কিশোরকে পেটানোর অভিযোগ - ajkerparibartan.com
বাকেরগঞ্জে চুরির অপবাদ দিয়ে দুই কিশোরকে পেটানোর অভিযোগ

2:48 pm , September 15, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাকেরগঞ্জে মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে দুই কিশোরকে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ওই কিশোরদের উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো- চর দাড়িয়াল সংলগ্ন বাংলাবাজার এলাকার জেলে ইব্রাহিম গাজীর ছেলে সুমন গাজী ও হেলাল হাওলাদারের ছেলে ফয়সাল হাওলাদার।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি মৃত হারুন ওরফে পুলিশ হারুনের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটে। এতে সন্দেহভাজন হিসেবে বাংলাবাজার এলাকার সুমন গাজী ও ফয়সাল হাওলাদারের উপর দায় চাপানো হয়। চুরির অপবাদ স্বীকার না করার কারনে সোমবার রাতে ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর দেলোয়ার ও ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বর মির্জার নির্দেশে ওই কিশোরদের জোড়পূর্বক তুলে নেওয়া হয়। সোমবার রাতে বাংলাবাজার থেকে বামনীকাঠি গ্রামে তুলে নিয়ে মেম্বরদের নেতৃত্বে স্থানীয় য্বুক রাকিব গাজী, খালেক হাওলাদার, মালেক হাওলাদার, আকাশ সিকদারসহ ৪/৫জন যুবক ওই কিশোরদের মারধর করে। শেবামেক হাসপাতালে আহত অবস্থায় সুমন গাজী ও ফয়সাল হাওলাদার বলেন, ‘সম্প্রতি আমাদের গ্রামের মৃত হারুন ওরফে পুলিশ হারুনের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটে। এতে সন্দেহভাজন হিসেবে আমাদের দুজনের ওপর চুরির দোষ চাপানো হয়।মিথ্যা চুরির অপবাদ স্বীকার না করার কারনে সোমবার রাতে ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর দেলোয়ার ও ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বর মির্জার শেল্টারে আমাদের জোড়পূর্বক বাংলাবাজার থেকে বামনীকাঠি গ্রামে তুলে নেওয়া হয়।
পরে মেম্বরদের শেল্টারে স্থানীয় য্বুক রাকিব গাজী,খালেক হাওলাদার,মালেক হাওলাদার,আকাশ সিকদারসহ ৪/৫জন যুবক আমাদেরকে মারধর করে।’ তবে কিশোরদের ওপর হামলাকারীদের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এদিকে বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আলাউদ্দিন বলেন,‘এধরনের ঘটনা আমার জানা নেই। তবে অভিযোগ পাওয়া গেলে অবশ্যই তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT