বিক্ষিপ্ত গোলযোগে দক্ষিণাঞ্চলের ১৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহন বিক্ষিপ্ত গোলযোগে দক্ষিণাঞ্চলের ১৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহন - ajkerparibartan.com
বিক্ষিপ্ত গোলযোগে দক্ষিণাঞ্চলের ১৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহন

3:43 pm , June 21, 2021

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর মারাত্মক সংক্রমন আর আষাঢ়ের প্রতিকুল আবহাওয়ায় বিক্ষিপ্ত গোলযোগে তিনজনের মৃত্যু সহ আরো প্রায় ২০ জন অহত হবার মধ্যেই দক্ষিণাঞ্চলের ১৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে। চরফ্যাশনের হাজীগঞ্জ ইউপির দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে মনির (২৫) ও গৌরনদীতে ককটেলের আঘাতে মৌজে আলী (৬৫) নিহত হওয়া ছাড়াও আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ চরফ্যাশনে ১২ রাউন্ড ও গৌরনদীতে ৬ রাউন্ড গুলিবর্ষন করলেও তাদের গুলিতে কেউ হতাহত হয়নি বলে পুলিশের উর্ধ্বতন সূত্রে বলা হয়েছে।
উত্তর-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুতে ভর করে গত কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতে দক্ষিণাঞ্চলের জনজীবন অনেকটাই বিপর্যস্ত। সোমবার সকাল ৬টার পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় বরিশালে ৪২ মিলি মিটার, পটুয়াখালীতে ৩৩ মিলি মিটার , ভোলাতে ২৬ মিলি মিটার ও সাগর পাড়ের কুয়াকাটা সংলগ্ন কলাপাড়াতে ২৪ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। সকাল ৮টায় অনেক এলাকাতেই হালকা থেকে মাঝারী বর্ষণের সাথে গোমরা কালো আকাশের নিচেই ভোট গ্রহন শুরু হলেও দুপুরের দিকে আকাশ কিছুটা পরিচ্ছন্ন হতে শুরু করে। ফলে সকাল থেকে বেশীরভাগ কেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি কম থাকলেও দুপুরের পরে তা বৃদ্ধি পেলেও আশানুরূপ ছিলনা।
উপরন্তু ১৭৩টি ইউনয়নের ২৬ চেয়রম্যন এবং ৩১ সাধারন সদস্য ও ৭ জন সংরক্ষিত নারী সদস্য ভোটের আগেই নির্বাচিত হওয়ায় অনেক এলাকাতেই ভোটারদের আগ্রহ ছিল কম। এ অঞ্চলের ৬ জেলার ৪২টি উপজেলার ২৮ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৯ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগের কথা থাকলেও বাস্তবে অর্ধেক সংখ্যক ভোটারও কেন্দ্রে যায়নি। বেশীরভাগ এলাকায় আওয়ামী লীগের বিদোহী প্রার্থীগন নিজ দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থীদের বিরুদ্ধে অনিয়ম সহ প্রভাব বিস্তারেরও অভিযোগ করেছেন। সোমবার একই সাথে ঝালকাঠী পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্র্রোহী প্রার্থী আফজাল হোসেন বিকেল ৩টর দিকে ভোট বর্জন করেন।
প্রশাসনের পক্ষ থেকে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্র্বাচনের লক্ষে বিজিবি ও কোষ্টগার্ড বাদে প্রায় ১২ হাজার আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য নিয়োগের কথা বলা হয়েছে। তবে বিরোধী দলহীন এ নির্বাচনে সরকার দলীয় একাধীক বিদ্রোহী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় গেলযোগের ঘটনায় অনেক এলাকার পরিবেশই ছিল কিছুটা উত্তপ্ত। দক্ষিনাঞ্চলের যে ১৪৭টি ইউপির চেয়ারম্যান পদে সোমবার ভোট হয়েছে, সেখানে প্রার্থী ছিলেন ৬৯৫ জন। আর সাধারন সদস্য পদে ৫ হাজার ৯৩১ জন ছাড়াও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য পদে আরো ১ হাজার ৮২৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। দক্ষিণাঞ্চলের ১৭৩টি ইউপি’র নির্বাচনে ১ হাজার ৬৩৩টি কেন্দ্রে যে প্রায় ২৯ লাখ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য অস্থায়ী ৪১০টি সহ মোট ভোট কক্ষ ছিল ৮ হাজার ৯৫৬টি। প্রতিটি কেন্দ্রে ১ জন করে মোট ১ হাজার ৬৩৩ জন প্রিজাইডিং অফিসার ছাড়াও ৮২ জন অতিরিক্ত প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৮ হাজার ৫৪৬ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ১৭ হাজার ৯২ জন পোলিং অফিসার নিয়োগ করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT