গরম হাওয়ার ঝড়ে পুড়েছে উজিরপুরের কৃষকদের স্বপ্ন ! গরম হাওয়ার ঝড়ে পুড়েছে উজিরপুরের কৃষকদের স্বপ্ন ! - ajkerparibartan.com
গরম হাওয়ার ঝড়ে পুড়েছে উজিরপুরের কৃষকদের স্বপ্ন !

2:45 pm , April 7, 2021

 

শাকিল মাহমুদ বাচ্চু, উজিরপুর ॥ ক’দিন আগেও যাদের মূখে ছিলো হাসি’র ঝিলিক এখন তাদের চোখে জল। এ দৃশ্য এখন উজিরপুরের ধান চাষীদের। বরিশালের উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়নের গ্রামজুড়ে ফসলের মাঠে ধান আর ধান ক’দিন পর কৃষক সোনালী ফসল ঘরে তুলবার খথা থাকলেও গত রোববার রাত ১১ টার দিকে হঠাত শুরু হওয়া গরম হাওয়া ঝড়ে ওই ইউনিয়নের প্রায় ২২০০ হেক্টর জমির বোরো কাচা- পাকা ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ধানের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার কারনে দিশেহারা কৃষকরা। ইউনিয়নের শিবপুর, রাজাপুর,পটিবাড়ি, আলামদি ও পশ্চিম সাতলা গ্রামের কৃষকদের চেখে এখন কান্নার রোল! নিচু এলাকা হওয়ার কারনে সাতলা ইউনিয়নের মানুষ বছরে শুধু বোরো মৌসুমেই ধানের চাষাবাদ করেন। এলাকর সিংহভাগ কৃষক এ বোরো ধানের উপর নির্ভরশীল তারা নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে সংসারের ব্যায়ভার হিসাবে ধান বিক্রি’র অর্থ কাজে লাগাতেন। হঠাত অচমকা গরম দমকা হওয়ায় মিলিয়ে গেছে তাদের সব স্বপ্ন। ফসলের জমির উপরদিয়ে বয়ে যাওয়া রোববার রাতের গরম বাতাসে ধারেন শীর্ষগুলো ধুষর বর্ন হয়ে মরে যাওয়ার বিষয়টি সকালের রোদ উঠার সাথে সাথে জমির ফসলের মধ্যে দৃশ্যমান হওয়ায় কৃষকরা তা দেখে দিশেহারা হয়ে পরেন। সাতলার স্থানীয়রা বিষয়টি ওই এলাকার সংসদ সদেস্য মো: শাহে আলম ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ সিকদার বাচ্চুকে জানালে তারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও জেলা বৈজ্ঞানিক কর্মকতাকে সরোজমিনে গিয়ে বিষয়টি’র করনীও জানাতে ও দেখবাল করার জন্য মৌখিক আদেশ দিলে মঙ্গলবার দিনভর উজিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকতা বিভিন্ন এলাকার জমিতে গিয়ে ধানের পুড়ে যাওয়া দৃশ্য স্ব- চোখে দেখে তিনিও হতভাগ হয়ে যান শেষ পর্যায়ে এসে মাঠ ভারা ধানের ফসলহীন আশঙ্কা ও সাধারন কৃষকের কান্নায় তিনি নিজেও আবেগ জড়িত হয়ে পরেন।স্থানীয় সমাজ সেবক মো: শাহিন হাওলাদার জানিয়েছেন ধানের এমন অবস্থা তিনি কখনো দেখেন নি? উপজেলার সাতলায় মন্দ হওয়ায় কৃষকের জমির ধান শেষ হয়ে গেছে প্রন্তিক চাষীদের সরকারী সাহায্য করা প্রয়োজন। পশ্চিম সাতলা গ্রামের বসন্ত হালদার জানিয়েছেন ২ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন ফলন বেশ ভাল হয়েছিল হঠাত তার সব কিছু শেষ হয়েগেছে একই আবস্থা হক বিশ্বাস নামক এক চাষীর তার ৪ বিঘা জমিতে ধানের বাম্পার ফলন হওয়ায় কয়েকদিন আগেও তার মুখে ছিলো হাসি’র ঝিলিক রোববারের গরম দমকা হওয়ায় তিনি এখন কান্না করছেন।উজিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: তৌহিদ জানিয়েছেন, চলতি বছর উপজেলা জুড়ে ১৩হাজার ৬ শত হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ করা হয়েছে ফলন বেশ ভাল হয়েছিল হঠাত মন্দা হাওয়ায় প্রায় ৮শত হেক্টর জমির ধান নষ্ট হয়ে গেছে তিনি প্রান্তিক কৃষকদের কান্না দেখেছেন ধানের এমন অবস্থা আর কখনো হয়নি মাঠ পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্ত চাষীদের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নির্নয় করে তালিকা তৈরী করে মন্ত্রনালয় পাঠানোর কথা তিনি জানিয়েছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ সিকদার বাচ্চু জানিয়েছেন সাতলার শত শত কৃষকদের ফসল হারানো ক্ষতি দেখে নিজেও হতবাগ সরকারী ভাবে ওই সব কৃষকদের প্রনোদনা দেয়ার ব্যাপারে তিনি সহয়াতা করবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT