প্রথম বারের জাতীয় ফুটবল লীগ খেলার অনুমতি চেয়েছে বরিশালের মেয়েরা প্রথম বারের জাতীয় ফুটবল লীগ খেলার অনুমতি চেয়েছে বরিশালের মেয়েরা - ajkerparibartan.com
প্রথম বারের জাতীয় ফুটবল লীগ খেলার অনুমতি চেয়েছে বরিশালের মেয়েরা

3:10 pm , March 6, 2021

সাঈদ পান্থ ॥ প্রথমবারের মত জাতীয় ওমেন্স ফুটবল লীগে অংশ নিতে যাচ্ছে বরিশালের মেয়েরা। বরিশালের ফুটবলপ্রেমী মানুষের স্বপ্ন “কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল” এর মধ্যমে তারা এই ওমেন্স লীগে অংশগ্রহণ করবে। যার কারণে ইতোমধ্যে বাংলাদেশে ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) বরাবর জাতীয় ওমেন্স লীগে অংশ গ্রহন করার জন্য চিঠি প্রেরণ করেছে। বাফুফের চিঠির পর অনুশিলন আরো বাড়িয়ে দিয়েছে বরিশালের ওমেন্স ফুটবলাররা। জানা গেছে, মেয়েদের সর্ব প্রথম লীগ হয়েছিল ২০১৩ সালে। এর গত ২০২০ সালে ৩য় মৌসুমে এই লীগ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কিন্তু প্রথম বারের মত বরিশালের মেয়েরা এই লীগে অংশ নিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে। যার কারণে নারী ফুটবলাররা বেজায় খুশি। বরিশালের নারী ফুটবলাররা বলেন, ফুটবলে নারীরা এগিয়ে আসছে। আমরা জাতীয় লীগে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। প্রতিদিন অনুশিলন চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা আশাবাদী ভালো কিছু করতে পারবো।
জানা গেছে, ২০১৭ সালে বরিশাল বিভাগের একটি বিভাগীয় ফুটবল ক্লাব হিসাবে “কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল” আতœপ্রকাশ করেছে। অনেক সীমাবদ্ধতা প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতার অভাব সত্ত্বেও বরিশালের ফুটবলের উন্নয়ন ও অগ্রগতি নিয়ে কাজ করার বৃহৎ পরিকল্পনা ও বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে ক্লাব সংশ্লিষ্ট কার্যকরী কমিটি। ২০১৭ সালে উত্তর পলাশপুর, কাজীর গোরোস্থান রোডে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটি বিগত দিনে সীমিত পরিসরে কার্যক্রম পরিচালনা করলেও ২০২১ সালের ভিষনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের পরামর্শক্রমে এবং সহযোগিতায় ইতিমধ্যে বরিশালবাসী ফুটবলপ্রেমী জনসাধারণের মধ্যে সারা ফেলতে শুরু করেছে। গত কয়েক বছর যাবত বরিশালে নিজস্ব ব?্যবস্থাপনায় কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল বেশকিছু টুর্নামেন্টের আয়োজন করে এবং বরিশালের বাইরেও বেশকিছু টুর্নামেন্টে চ?্যাম্পিয়ান হবার গৌরব অর্জন করে। কীর্তনখোলা ক্লাবের কয়েকজন খোলোয়ার বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ সহ ঢাকায় বিভিন্ন লীগ অংশগ্রহণ করেন।
জানা গেছে, দ্বীর্ঘদিন যাবত কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল অত্র বিভাগীয় বিভিন্ন টুর্নামেন্ট আয়োজন করে যাচ্ছেন। এছাড়া অনুর্ধ-১৭(পুরুষ,মহিলা) অনুর্ধ-১২ (বালক) বাছাইয়ের মাধ্যমে দক্ষ কোচের তত্ত্বাবধানে নিজস্ব মাঠে প্রশিক্ষণের ব?্যবস্থা করেছে কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল। এই ক্লাবের কার্যক্রমেকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ব বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের অধিনে চ?্যাম্পিয়ান্স লীগ ও বতর্মান প্রক্রিয়াধীন ওমেন্স প্রীমিয়ার লীগে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্য বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে প্রয়োজনীয় তথ?্য জমা দিয়েছে। বরিশাল বিভাগীয় টিম হিসাবে নিবন্ধনের প্রত?্যাশায় ইতিমধ্যে কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল ওমেন্স লীগে অংশগ্রহনের জন?্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের তথ?্য অনুযায়ী এবারের ওমেন্স লীগে অংশগ্রহনের জন?্য ১৬ টি দল আবেদন করেছেন। এর মধ্য বরিশাল বিভাগের একমাএ দল হিসেবে “কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল”। বরিশালের বিভিন্ন ফুটবল প্রেমী মানুষের সাথে ক্রাইম সিন কথা বলে জানতে পারে, জাতীয় এই ওমেন্স লীগে অংশগ্রহণ করা বরিশাল বাসীর প্রানের দাবী। অন?্যান?্য বিভাগের একাধিক টিম ও পাড়া-মহল্লার ছোট অনেক দলও এবারের ওমেন্স লীগে অংশগ্রহণ করতে আগ্রহী। বাংলাদেশের মতো দেশে এতগুলো দল ওমেন্স প্রীমিয়ার লীগে অংশগ্রহণ করতে আগ্রহী হবার বিষয়টিকে বাফুফে ইতিবাচকভাবে দেখছে এবং সেই অর্থে গতবারের তুলনায় এবারে দলের সংখ্যা বাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশের নারীদের অধিকার সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে কাজ করা অনেকেই মনে করেন, বাংলাদেশ ওমেন্স লীগে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক প্রত?্যকে দলকেই সুযোগ করে দাওয়া উচিৎ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের এবং পাশাপাশি মহিলা দলগুলার প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতাও প্রদান করা উচিত। বরিশালের তথা বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি ও হস্তক্ষেপ কামনা একান্ত জরুরি। সর্বপরি বরিশালের ফুটবল উন্নয়নে বতর্মান ফুটবল ফেডারেশনের সদয় দৃষ্টি থাকবে বলে আশা করে বরিশালের ফুটবলপ্রেমী জনগন।
কীর্তনখোলা এফসি বরিশাল সভাপতি ডা. মো: ফরিদ হোসেন বলেন, আমরা দল প্রস্তুত করে অনুশিলন শুরু করে দিয়েছি। ইতোমধ্যে বাংলাদেশে ফুটবল ফেডারেশনকে চিঠি দিয়েছি। এখন পর্যন্ত ১৬টি দল অংশগ্রহনের জ্য প্রস্তুতি ও চিঠি দিয়েছে। তার মধ্যে কীর্তণখোলা এফসি একটি। বাফুফে চাইলে ১৬ টি দল নিয়েই খেলা শুরু করতে পারেন বা কাউকে বাদও দিতে পারে। আমরা লীগে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।
বরিশাল জেলা প্রশাসন মোঃ জসীম উদ্দিন হায়দার বলেছেন, আমি নিজে একজন ক্রিড়াবিদ। নারী ফুটবলারদের শুভকামনা। তাদের সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। বর্তমান ফুটবল অঙ্গনকে এগিয়ে নিয়ে তরুণ ও যুব সমাজের মধ্যে শরীর চর্চার বিকাশ ঘটানোর নিমিত্বে ফুটবলের জাগরন অতিব জরুরি। বরিশালের যুবসমাজকে মাদক এবং ভার্চুয়াল এডিকশন থেকে রক্ষা করতে একমাএ ক্রিড়া অঙ্গনেই অগ্রানী ভূমিকা পালন করতে পারে। এটি বর্তমান সমাজের নারীদের মাঝে ক্রিড়ার বিকাশ ঘটানোর আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হতে পারে। বাংলাদেশে ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাঈম সোহাগ বলেন, আমরা বরিশাল থেকে একটি টিমের চিঠি পেয়েছি। খুব শিঘ্রই এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT