শেবাচিম হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্ত করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় শেবাচিম হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্ত করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় - ajkerparibartan.com
শেবাচিম হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্ত করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়

3:08 pm , February 23, 2021

 

হেলাল উদ্দিন ॥ বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতি তদন্ত করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। হাসপাতালের ৩২ পদে নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে উচ্চাদালতের আদেশ শেষ হওয়ার পর তদন্ত কাজ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) মোঃ মুহিবুর রহমান। তিনি জানান, হাসপাতালের নিয়োগের দুই প্রার্থী নি¤œ ও উচ্চ আদালতে মামলা করেছে। উচ্চ আদালতের নির্দেশে নিয়োগ কার্যক্রম ৬ সপ্তাহের জন্য স্থগিত রয়েছে। তাই এই সময়ের মধ্যে মন্ত্রনালয় কোন হস্তক্ষেপ করবে না। হাসপাতালের নিয়োগ দূর্নীতির বিষয়টি পর্যবেক্ষনে রয়েছে। স্থগিত আদেশ শেষ হবার পরে উচ্চ আদালতের পরবর্তী রায় বা পদক্ষেপ কি হয় তা দেখে মন্ত্রনালয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে। তিনি বলেন কোন প্রার্থী বা সংশ্লিষ্ট কোন ভুক্তভোগী কোন অভিযোগ করেনি। তারপরও গনমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও উচ্চ আদালতের রায়ের পর মন্ত্রনালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে। মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব (পার) শাহিনা খাতুন বলেন, বিষয়টি নজরে রয়েছে। সময় হলেই তদন্ত যাবে। তদন্ত রিপোর্টে নিয়োগে কোন অনিয়ম দূর্নীতির প্রমান পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১২টি ক্যাটাগরিতে ৩২ জন কর্মচারী নিয়োগের জন্য গত বছর ২৩ ডিসেম্বর একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। গত ৫ ফেব্রুয়ারী প্রায় ৭০০ আবেদনকারীর অংশ গ্রহণে লিখিত পরীক্ষা হয়। লিখিত পরীক্ষায় ৪৪৪ জনকে উত্তীর্ণ দেখিয়ে ৬ ফেব্রুয়ারি ফলাফল প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের কয়েকজন কর্মচারীর সন্তান ও স্বজন জালিয়াতি করে এই নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন বলে অভিযোগ ওঠে। একই সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওইদিন পরীক্ষার হলে তাদের পছন্দের প্রার্থীদের নকল সরবরাহ করে বলে অভিযোগ করা হয়। এই অভিযোগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি হাসপাতালের পরিচালক সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে বরিশাল সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন দুই পরীক্ষার্থী। এরপরও নিয়োগ কার্যক্রম চলমান রাখায় তারা ওই নিয়োগ কার্যক্রম বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারি বিচারপতি একে-এম শহীদুল হকের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একক বেঞ্চ কেন এই নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল হবে না জানতে চেয়ে রুল জারীর নির্দেশ দেন। একই সাথে এই নিয়োগ প্রক্রিয়া ৬ সপ্তাহের জন্য স্থগিতের নির্দেশ প্রদান করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT