অপরাধী রক্ষার মিশনে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই রেজাউল অপরাধী রক্ষার মিশনে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই রেজাউল - ajkerparibartan.com
অপরাধী রক্ষার মিশনে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই রেজাউল

2:16 pm , December 4, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ অপরাধীকে রক্ষায় সার্বিক সহযোগিতা করায় কোতয়ালী মডেল থানার এক এসআইয়ের (উপ-পরিদর্শক) বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, পুলিশ কমিশনার, সংশ্লিষ্ট থানার ওসি ও র‌্যাব-৮ কার্যালয়ে অভিযাগ দেয়া হয়েছে। নগরীর বাসিন্দা অব. সেনা সদস্য (ইঞ্জিনিয়ার কোরের ওয়ারেন্ট অফিসার) মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আবু সাঈদ খান ওই অভিযোগ দিয়েছেন। কোতয়ালি মডেল থানার এসআই মো. রেজাউলের বিরুদ্ধে অপরাধীতে রক্ষায় থানায় মামলা ও অভিযোগ না নেয়ার জন্য প্রভাব বিস্তার, নানা মহলে অবহিত করার পর থানায় অভিযোগ নেয়ার পরেও তদন্ত না করার চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। লিখিত অভিযোগে আবু সাঈদ খান জানান, তার জমানো অর্থ ও প্রবাসী ছোট ভাইয়ের সহযোগিতায় গাজীপুর চান্দনায় একটি সোয়েটার ফ্যাক্টরি প্রতিষ্ঠা করেন। যার দায়িত্ব দেয়া হয় আত্মীয় নওশের জাহান সুহানকে। ২০১৭ সালে সে (সাঈদ খান) অসুস্থ হয়। এরপর থেকে সুহান তাকে ব্যবসার লাভ কিংবা হিসেব দেয়নি। দীর্ঘ ২ বছর এমন অবস্থায় চলার পরে অনুনয়-বিনয়ের পর হিসেব দিতে রাজি হয় সুহান। তাই গত ৩১ অক্টোবর হিসেব সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনার জন্য অক্সফোর্ড মিশন রোডে তার (আবু সাঈদ) মামার বাসায় সালিস বৈঠকে বসেন প্রবাসী ছোট ভাই। সেখানে সুহান ও তার আপন ছোটভাই নওয়াজেশ জাহান সোয়েব সহ ১৫/২০ জন ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে প্রবাসী ছোটভাইয়ের উপর হামলা করে। এ সময় তার মামা, মামী ও ভগ্নিপতিরাও আহত হয়। গুরুতর আহত প্রবাসীকে ভাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভাই ৫ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর সুস্থ হয়। সন্ত্রাসী নিয়ে হামলার ঘটনায় রাগে-ক্ষোভে অভিমানে প্রবাসী ভাই সুস্থ হয়ে বিদেশে ফিরে যায়।
এদিকে এই ঘটনায় তার (আবু সাঈদ) বাবা কোতয়ালী মডেল থানায় অভিযোগ দিতে যায়। কিন্তু অভিযোগ নিয়ে তিনদিন থানায় গেলেও অভিযোগ গ্রহন করেনি। তখন খবর নিয়ে আবু সাঈদ জানতে পারেন অভিযুক্ত সুহানের সাথে থানার এসআই রেজাউলের পরিচয় রয়েছে। এসআই রেজাউলকে টাকা দিয়ে তার সহায়তা অভিযোগ নেয়নি থানা। নানা চেষ্টার পর গত ৩ নভেম্বর আবু সাঈদের বাবা অভিযোগ দিতে সক্ষম হয়। কিন্তু এখনো সেই অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়নি। খোজ নিয়ে জানা গেছে, এসআই রেজাউল অভিযোগের তদন্তকারীর উপর প্রভাব বিস্তার করে তদন্ত কাজ বন্ধ করেছে। এছাড়াও ঘটনাটি ভিন্নখাতে নেয়ার জন্য এসআই রেজাউলের প্ররোচনায় সুহান ও তার ভাই সোয়েব হাসপাতালে ভর্তি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে মামলার পায়তারা করছে। এসআই রেজাউল ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলেও জানা গেছে। তাই সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করে সুবিচার পাওয়ার আবেদন করেছেন অভিযোগকারী আবু সাঈদ।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT