কাশিপুরের ভুইয়া বাড়ীতে হত্যা জড়িত সন্দেহে নারী গ্রেপ্তার কাশিপুরের ভুইয়া বাড়ীতে হত্যা জড়িত সন্দেহে নারী গ্রেপ্তার - ajkerparibartan.com
কাশিপুরের ভুইয়া বাড়ীতে হত্যা জড়িত সন্দেহে নারী গ্রেপ্তার

3:08 pm , November 22, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর গড়িয়ার পাড় থেকে ড্রামে ভর্তি করে বাসে তুলে দেয়া নারীর লাশের পরিচয় মিলেছে। এছাড়াও নারীকে হত্যায় জড়িত থাকার সন্দেহে অপর এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গৌরনদীর থানার ওসি আফজাল হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। ড্রাম থেকে উদ্ধার হওয়া নারী হলো গৌরনদীর দিয়াসুর এলাকার প্রবাসী শহিদুল ইসলামের স্ত্রী তিন সন্তানের জননী সাবিনা বেগম। তাকে হত্যায় জড়িত থাকার সন্দেহে গ্রেপ্তার করা নারী হলো গৌরনদী উপজেলার ডিমালয় গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল খালেকের স্ত্রী রহিমা বেগম।
গৌরনদী থানার ওসি জানান, সাবিনাকে নগরীর কাশিপুর এলাকার ভুইয়া বাড়ীতে নির্মানাধীন ভবনে হত্যা করা হয়। পরে তার লাশ ড্রামে ভর্তি করে বাসে উঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত রহিমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন ঘটনার বিস্তারিত পরে জানানো হবে। এছাড়াও হত্যায় ব্যবহৃত হাতুরি ও রশি উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
নিহতের দেবর মনির হাওলাদার জানান, তার ভাই শহিদুল ইসলাম-ভাবী সাবিনার মাধ্যমে বিদেশে যাওয়ার জন্য গৌরনদীর মাহিলাড়া এলাকার খালেক বেশ কিছুদিন পূর্বে ৪ লাখ টাকা দেয়। বিলম্ব হওয়ায় খালেক বিদেশে যেতে অসম্মতি জানায়। সাম্প্রতি ভাবী সাবিনা খালেককে দেড় লাখ টাকা ফেরত দিয়েছে। শুক্রবার সকালে দুই সন্তান নিয়ে নারায়নগঞ্জের ফতুল্লা থেকে গৌরনদীর দিয়াসুরের বাড়ি আসে তার ভাবী। সকাল ১০টার দিকে খালেক তাকে ডেকেছে জানিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় সাবিনা। সারা দিনেও সে বাড়ি ফেরেনি। ওই রাতে ভুরঘাটা বাসস্ট্যান্ডে একটি বাসে থাকা ব্যারেলের মধ্য থেকে সাবিনার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তার আঙুলের ছাপ মিলিয়ে সাবিনার পরিচয় সনাক্ত করে পুলিশ।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT