বাবুগঞ্জে নদী ভাঙনে স্লুইজ গেইট ও বাজার নদীগর্ভে বিলিন বাবুগঞ্জে নদী ভাঙনে স্লুইজ গেইট ও বাজার নদীগর্ভে বিলিন - ajkerparibartan.com
বাবুগঞ্জে নদী ভাঙনে স্লুইজ গেইট ও বাজার নদীগর্ভে বিলিন

3:12 pm , August 4, 2020

বাবুগঞ্জ প্রতিবেদক ॥ বাবুগঞ্জে আকস্মিক নদী ভাঙনে পানিউন্নয়ন বোর্ডের একটি স্লুইজগেইট নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এ ছাড়াও ভাঙনের তীব্রতায় নদী গর্ভে বিলীনের পথে সিংহেরকাঠী গ্রামের ঐতিহ্যবাহী ছোট মীরগঞ্জ বাজার। যুগযুগ ধরে ধরে সর্বনাশা আড়িয়াল খাঁ নদীর অব্যাহত ভাঙনে নদী পারের শত শত ঘরবাড়ী বিলীন হয়ে গেছে। মাথা গোজার ঠাঁই হারিয়ে এসব লোকজন অনত্র বসবাস করছেন। নদী ভাঙন অব্যাহত থাকলেও ভাঙন রোধে কোন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন না হওয়ায় ক্ষুব্দ হয়ে উঠছে নদী পারের মানুষ। গত কয়েকদিনে উত্তর অঞ্চলের বন্যার অবনতি হলে আড়িয়াল খাঁন নদীতে জোয়ারের পানি বৃদ্ধির ফলে নতুন করে ভাঙ্গন শুরু হয়। ফলে উপজেলার রহমতপুর ইউনিয়নের সিংহেরকাঠি গ্রামের বেশকিছু ঘরবাড়ি ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। হুমকির মুখে সিংহেরকাঠি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মীরগঞ্জ বাজার, ফেরিঘাটসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। এছাড়া ভাঙন ঝুঁকিতে এসব এলাকার শতশত একর আবাদি জমি। খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, সিংহেরকাঠি গ্রামের প্রায় অর্ধশতাধিক পরিবার নদী ভাঙনে নিস্ব হয়ে অনত্র চলে গেছে। শতাধিক পরিবার ভাঙন আতংঙ্কে জীবন জাপন করছে। এদিকে আড়িয়াল খাঁ নদীর ভাঙনের তীব্রতার খবর পেয়ে ভাঙন কবলিত পরিদর্শনে আসেন বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মৃধা মুহাঃ আক্তার-উজ-জামান মিলন বাবুগঞ্জের নদী ভাঙনের বাস্তব চিত্র প্রকৌশলীকে ঘুড়িয়ে দেখান এবং সুগন্ধা ও আড়িয়াল খাঁ নদীর ভাঙনের তীব্রতা সম্পর্কে ধারনা প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. সামসুজ্জামান সোহেল। প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ ভাঙন পরিস্থিতি দেখে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের আশ^াস দেয়। তিনি সুগন্ধা নদীরও কয়েকটি ভাঙন স্পট পরিদর্শন করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT