জনবলের অভাবে ৪টি মেডিকেল এসিষ্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুল চালু হচ্ছে না জনবলের অভাবে ৪টি মেডিকেল এসিষ্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুল চালু হচ্ছে না - ajkerparibartan.com
জনবলের অভাবে ৪টি মেডিকেল এসিষ্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুল চালু হচ্ছে না

4:23 pm , July 10, 2024

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ প্রায় ১২৪ কোটি টাকা ব্যয়ে বরিশালে ৪টি মেডিকেল এসিষ্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুলের (ম্যাটস) নির্মান কাজ সম্পন্ন করেছে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর-এইচইডি। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আগৈলঝাড়ার স্কুলটির নির্মান কাজ গত ৩০ জুন সম্পন্ন হলেও এখনো তা স্বাস্থ্য বিভাগে হস্তান্তর হয়নি। তবে পুরো প্রতিষ্ঠানটি হস্তান্তরের জন্য প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশাল এইচইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী। তিনি বলেন, আমরা নির্মান কাজে সর্বোচ্চ মান বজায় রাখার চেষ্টা করেছি। কাজের মানের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নিয়ে এগিয়ে যাবার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগ যেকোন সময় অন্য ৩টি প্রতিষ্ঠানের মত আগৈলঝাড়ার প্রতিষ্ঠানটি আমরা বুঝিয়ে দিতে প্রস্তুত রয়েছি।
প্রতিটি ম্যাটস এ একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবন, বৈদ্যুতিক সাব-স্টেশন, ছাত্র-ছাত্রী হোষ্টেল, অধ্যক্ষের বাসভবন ছাড়াও নিরাপত্তা প্রহরীদের চৌকি নির্মান করা হয়েছে। প্রতিটি ম্যাটস’এ ১১৪ ছাত্র ও সমান সংখ্যক ছাত্রীদের আবাসন সুবিধা সম্বলিত অবকাঠামো নির্মিত  হয়েছে।
তবে বাবুগঞ্জ, আগৈলঝাড়া,গাবখান ও দৌলতখানে নির্মিত এসব ম্যাটস এর নির্মান কাজ সম্পন্ন হলেও জনবল নিয়োগ না হওয়ায় এসব স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি সহ পুরো কার্যক্রম কবে শুরু হবে তা এখনো অনিশ্চিত।
অথচ এসব স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিটি থেকে বছরে ৫০ জন করে অন্তত ২শ স্বাস্থ্য সহকারী পাস করে বের হবার কথা। যাদের মাধ্যমে শহর ও গ্রামের বিশাল জনগোষ্ঠীকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
তবে এখন পর্যন্ত জনবল মঞ্জুরীর বিষয়টি আলোর মুখ দেখেনি বলে স্বাস্থ্য বিভাগের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে। বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডাক্তার শ্যমল কৃষ্ণ মন্ডলের সাথে আলাপ করা হলে তিনি জানান, বরিশালের এ ৪টি ম্যাটস স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের আওতায়। কিন্তু মাঠ পর্যায়ে তাদের তেমন কোন প্রতিনিধি না থাকায় সিভিল সার্জন প্রতিষ্ঠানগুলো মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি হিসেবে গ্রহণ করতে বাধ্য হলেও আমাদের তেমন কিছু করণীয় নেই। এসব ম্যাটস যত দ্রুত সম্ভব চালুর বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন স্বাস্থ্য পরিচালক।
অপরদিকে প্রয়োজনে এডহক ভিত্তিতে জনবল নিয়োগ করে বরিশালের ৪টি ম্যাটস চালু করার পক্ষে মত দিয়েছেন একাধিক চিকিৎসক সহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। এমনটা না হলে বরিশালের ৪টি ম্যাটস শুধু ভবন সর্বস্ব একেকটি স্থাপনায় পরিনত হবে। ৪টি ম্যাটস এর স্থাপনা নির্মানে ইতোমধ্যে ১২৩ কোটি ৭৮  লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT