কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও শয্যা সংকট কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও শয্যা সংকট - ajkerparibartan.com
কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও শয্যা সংকট

3:52 pm , July 5, 2024

রিয়াদ মাহমুদ সিকদার, কাউখালী প্রতিবেদক ॥ কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও শয্যা সংকটের কারণে চরম দুর্ভোগে পড়ছেন রোগীরা।
উপজেলার প্রায় দেড় লক্ষাধিক মানুষের একমাত্র চিকিৎসার মাধ্যম এ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। অস্থায়ী ভবনে বর্তমানে চিকিৎসা সেবা চলছে। পুরাতন ভবন ভেঙ্গে পড়ার পর ভবনটি একের পর এক জটিলতার কারণে দীর্ঘ ১৬ বছরেও নতুন ভবনের কাজ না হওয়ায় এ অবস্থার তৈরী হয়েছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৪ জন মেডিকেল অফিসারের পদ থাকলেও আছে মাত্র তিনজন মেডিকেল অফিসার। তিনজন মেডিকেল অফিসার দিয়ে উপজেলার দেড় লক্ষ মানুষের চিকিৎসা সেবা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছে। কাউখালী হাসপাতালে বর্তমানে কোন ভবন না থাকায় অস্থায়ী হাসপাতালের ভবনে শয্যা আছে মাত্র ২০টি। কিন্তু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬০ থেকে ৭০ জন রোগী প্রতিদিন ভর্তি থাকে।
হাসপাতালে ভর্তি রোগী হাফিজা বেগম (৪৫) বলেন, কাউখালীতে মাত্র একটি হাসপাতাল। অবস্থা এতই নাজুক যে একই বেডে দুইজন করে রোগী থাকতে হয়। হাসপাতালে ডাক্তারও নেই। আমি অসুস্থ হয়েছি। আমি গরীব, যাওয়ার কোথাও জায়গা নেই তাই এখানে ভর্তি হয়েছি।  সদর ইউনিয়নের মজিবর রহমান জানান, জায়গা না থাকায় দুই রুমের মধ্যে প্রতিদিন শত শত রোগীকে চিকিৎসা নিতে হয়।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র স্টাফ নার্স ফারজানা মুনমুন বলেন, অস্থায়ী ভবনে আমরা বর্তমানে রোগীদের চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাচ্ছি। যখন রোগী বেশি হয় তখন এক বেডে একাধিক রোগীদের থাকতে দিতে হয়। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সুজন সাহা বলেন, অস্থায়ী ভবনে ঝুঁকির মধ্যে আমরা চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। চিকিৎসক সংকট থাকার কারণে সেবায় কিছুটা বিঘœ ঘটছে
স্থানীয় সংসদ সদস্য রোগীদের বেড বাড়ানোর জন্য নিজস্ব অর্থায়নে একটি টিনশেট বিল্ডিং এর ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন।
জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার মিজানুর রহমান বলেন, কাউখালীতে ডাক্তার সংকট রয়েছে। বিষয়টা আমি অবগত আছি এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

 

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT