স্পেন প্রবাসীসহ পরিবারের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা স্পেন প্রবাসীসহ পরিবারের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা - ajkerparibartan.com
স্পেন প্রবাসীসহ পরিবারের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

4:08 pm , June 27, 2024

ইটালী পাঠানোর নামে তরুনকে পাচারের অভিযোগ
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ইটালী নেয়ার প্রলোভনে নাইজেরিয়া নিয়ে আটকে মুক্তিপন দাবি ও নির্যাতনের অভিযোগে স্পেন প্রবাসী এবং তার পরিবারের তিন সদস্যর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বুধবার বরিশালের মানব পাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন স্পেন প্রবাসীরা ভায়েরা। ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মঞ্জুরুল হোসেন মামলায় আনা অভিযোগ তদন্ত করে গৌরনদী মডেল থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। বাদী গিয়াসউদ্দিন মৃধা গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর গ্রামের আব্দুল হাই মৃধার ছেলে। আসামীরা হলো-মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার দক্ষিন রাজদি গ্রামের বাসিন্দা আবুল বাশার সিকদারের ছেলে স্পেন প্রবাসী বেলায়েত সিকদার সোহেল, তার বাবা আবুল বাশার সিকদার, সোহেলের স্ত্রী শিউলী বেগম ও ভাই সোহাগ সিকদার। মামলার বাদী উল্লেখ করেছেন, স্পেন প্রবাসী সোহেল তার ভায়েরা। এ সুবাদে খাঞ্জাপুর গ্রামের এইএম আলীর ছেলে এইচএম অনীককে ইটালী নেয়ার প্রস্তাব দেয়। শর্ত অনুযায়ী ৫ বছরের ভিসাসহ ওয়ার্ক পারমিট দেয়া হবে। এই জন্য ১৫ লাখ টাকা দাবি করেন সোহেল। দাবি অনুযায়ী ১৫ লাখ টাকা সোহেলের পরিবারের উপস্থিতিতে দেয়া হয়। ২০২৩ সালের ১৬ জুন অনীককে ইটালী নেয়ার উদ্দেশ্যে প্রথমে আরব আমিরাতের শারজাহ নেয়। সেখান থেকে উজবেকিস্থান নিয়ে যায়। ২০২৩ সালের ২৮ অক্টোবর অনীককে নাইজেরিয়ার রাজধানী নাইজারের জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে অনীকের কাছে আরো ১০ লাখ টাকা দাবি করে। ওই টাকা না দেয়ায় তাকে হত্যার হুমকি দেয়াসহ নির্যাতন করে। গত ২০ জুন সোহেলসহ সকল আসামীদের পেয়ে অনীককে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি করা হয়। তখন আসামীরা জানিয়েছে, অনীককে ফেরত আনতে হলে আরো ১০ লাখ টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে তাকে ফেরত আনা হবে না।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT