সিস্টেম পরিবর্তনের মাধ্যমে দুর্নীতি নির্মূলের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছি-ভূমি মন্ত্রী সিস্টেম পরিবর্তনের মাধ্যমে দুর্নীতি নির্মূলের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছি-ভূমি মন্ত্রী - ajkerparibartan.com
সিস্টেম পরিবর্তনের মাধ্যমে দুর্নীতি নির্মূলের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছি-ভূমি মন্ত্রী

4:26 pm , June 22, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ভূমি মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেছেন, ভূমি অফিসের সাথে সংশ্লিষ্ট অনেকেই দুর্নীতি করেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) ভালো থাকলেও তার অফিসে অনেকেই নানা ভাবে অসৎ কাজ করে যাচ্ছে। এখন সবকিছু দুর্নীতি মুক্ত করে স্মার্ট বাংলাদেশে গড়ে তুলতে হবে। শনিবার দুপুরে বরিশাল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত জনবান্ধব ডিজিটাল জরিপ বিষয়ক কর্মশালা ও অংশীজনের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।
এ সময় ভূমি মন্ত্রী বলেন, আমরা পদ্ধতিগত (সিস্টেম) পরিবর্তনের মাধ্যমে দুর্নীতি নির্মূলের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছি। এই উদ্যোগ স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের পথে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।
ভূমি মন্ত্রী আরও বলেন, পর্যায়ক্রমে স্মার্ট ভূমি ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। ভূমি সংশ্লিষ্ট দপ্তর গুলোতে জনবল কম আছে তা দ্রুত বাড়ানোর চেষ্টা চলছে। অনেকে জমিজমার বিষয়ে সচেতনার অভাবে ত্রুটি হচ্ছে। সচেতনা বাড়ানোর পাশাপাশি প্রতিটি অফিস দুর্নীতি মুক্ত করা এখন লক্ষ। দুর্নীতি যেই করুক এখন ধরা পড়ে যায়। কারন ভোটার আইডি কার্ডে সবার জমি সহ সব কার্যক্রম রেকর্ড হয়। ফলে দুর্নীতি করে পাড় পাওয়ার সুযোগ নাই।
ভূমিমন্ত্রী আরও বলেন, ভূমি ব্যবস্থাপনার স্মার্ট ডিজিটালাইজেশন বৈধ মালিকদের স্বার্থ সংরক্ষণ করবে। এটি অবৈধ দখল রোধ করার পাশাপাশি অসৎ উপায়ে অর্জিত অর্থে ভূমি ক্রয়ের প্রচেষ্টাও প্রতিহত করবে। প্রধানমন্ত্রীর দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, আমরা জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) ব্যবস্থাকে ভূমি মালিকানা ব্যবস্থাপনার সাথে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা করেছি। এই উদ্যোগ সফল হলে ভূমি সংক্রান্ত অপরাধ প্রবণতা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পাবে।
ভূমি মন্ত্রণালয় জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, সচেতন নাগরিকই স্মার্ট নাগরিক। স্মার্ট নাগরিকরা তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন থাকেন। নাগরিকদের সচেতনতা বৃদ্ধি পেলে দূর্নীতি অনেকাংশেই হ্রাস পাবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আনিস মাহমুদ এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জিয়াউদ্দীন আহমেদ।
বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. শওকত আলী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মোঃ আহসান হাবীব, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. মোমিনুর রশীদ, বরিশালের জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলামসহ, বরিশালের জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসার মৃধা মো. মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, চার্জ অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং ভূমি প্রশাসনের অন্যান্য মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
অন্যান্যদের মধ্যে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা তালুকদার মো. ইউনুসসহ আরও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সুধীজন, অংশীজন, গণমাধ্যম এবং নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT