সমঝোতার প্রস্তাব দিচ্ছে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদ সমঝোতার প্রস্তাব দিচ্ছে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদ - ajkerparibartan.com
সমঝোতার প্রস্তাব দিচ্ছে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদ

4:44 pm , June 13, 2024

বানারীপাড়ায় গৃহবধুর ছবি এডিট করে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি

বানারীপাড়া প্রতিবেদক ॥ বানারীপাড়ায় গৃহবধুর ছবি এডিট করে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা আদায় শিরোনামে আঞ্চলিক দৈনিক পরিবর্তন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার সাথে-সাথে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদ ভীত হয়ে ব্লাকমেইলের শিকার ভুক্তভোগী কুয়েত প্রবাসী গৃহবধুর হাত-পা ধরে শালিস বৈঠকে বসার প্রস্তাব পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে ওই গৃহ বধুর বানারীপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক কামাল হোসেন সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টি তদন্ত করছেন বলে বলে থানা সুত্রে জানা গেছে।
উল্লেখ্য, বানারীপাড়ার এক গৃহবধু ৭ বছর যাবত কুয়েত প্রবাসী। কুয়েত থাকাকালীন সময়ে সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রতিবেশি মোস্তাক আহম্মেদের সাথে পরিচয় হয়। এ সময় ওই গৃহবধুর সাথে ম্যাসেঞ্জারে মোস্তাকের কথা-বার্তা হয়। এক পর্যায়ে মোস্তাক ওই গৃহবধুর ছবি এডিট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করে। ওই গৃহবধু মান সম্মানের ভয়ে বিভিন্ন সময়ে মোস্তাককে টাকা দেন।দুইমাস আগে ওই গৃহবধু দেশে আসলে আরো টাকা ও তার সাথে অনৈতিক সম্পর্ক দাবি করে। এমনকি মোস্তাক ওই গৃহবধুর বাড়িতে এসে ও হুমকি দেয়। এরই প্রেক্ষিতে ওই গৃহবধু ১০ জুন সোমবার বানারীপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
এদিকে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদের ব্লাকমেইলের সংবাদটি আঞ্চলিক দৈনিক পরিবর্তন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে পার্শবর্তী স্বরুপকাঠী (নেছারাবাদ) সরকারী কলেজের এক শিক্ষার্থী মুঠোফোনে জানান, ১ বছর পুর্বে সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তার সাথে প্রতারক মোস্তাক আহম্মেদের পরিচয় হওয়ার পরে বিভিন্ন সময়ে ম্যাসেঞ্জারে তার সাথে কথা-বার্তা ও লেখা-লেখি আদান প্রদান হয়। এক পর্যায়ে মোস্তাক আহম্মেদ একইভাবে ওই ছাত্রীর ছবি এডিট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি ও ভয়-ভীতি দেখিয়ে ব্লাকমেইলের মাধ্যমে তার কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।এমনকি ওই ছাত্রীর ছবি ব্যবহার করে ফেইসবুক আইডি খুলে এডিট করে আপত্তিকর ছবি ছেড়ে সম্মান হানি করছে মোস্তাক। এখন ও বিভিন্ন রকম হুমকি দিয়ে ওই ছাত্রীর কাছে টাকা দাবি করে আসছে সে। লোক লজ্জা ও মান-সম্মানের ভয়ে মুখ খুলতে পারছেন না বলে ও জানান ওই ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রী।
এ ব্যাপারে বানারীপাড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মো: মাইনুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্ত চলছে। এখন পর্যন্ত পর্নগ্রাফীর কোন প্রমান পাওয়া যায়নি। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT