আফ্রিকান মাগুর মাছ চাষীকে জরিমানা আফ্রিকান মাগুর মাছ চাষীকে জরিমানা - ajkerparibartan.com
আফ্রিকান মাগুর মাছ চাষীকে জরিমানা

4:41 pm , June 6, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ হিজলায় পুকুরে সেচ দিয়ে বিপুল পরিমান আফ্রিকান মাগুর মাছ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়াও নিষিদ্ধ ঘোষিত এ মাছ চাষ করায় এক চাষীকে তিন হাজার টাকা জরিমানাও করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার দিনগত গভীর রাতে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী হাকিম উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইয়াসীন সাদেক জরিমানা করেন।
হিজলা উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলম জানান, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের বান্দের বাজার এলাকায় এক বিক্রেতা আফ্রিকান মাগুর মাছ বিক্রি করতে আসে। খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে ৩৫ কেজি মাছ উদ্ধার করা হয়। ওই মাছ বিভিন্ন মাদ্রাসায় রাতেই বিতরন করা হয়।
মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলম আরো জানান, এক পর্যায়ে জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারি উপজেলার বড়জালিয়া ইউনিয়নের খুন্না গোবিন্দপুর এলাকায় মোতাহার কবিরাজ নামে এক চাষী পুকুরে ওই মাছ চাষ করে। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়। তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে মাছ ধরে ফেলার নির্দেশ দেন। কারন এসব মাছ পুকুর ডুবে নদী, খাল বিলে ছড়িয়ে পড়লে ভয়াবহ হতো। কারন একটি মাছ কেজি সাইজের হতে দুই থেকে তিনশ কেজি দেশীয় প্রজাতির মাছ খেয়ে ফেলতো। দ্রুত প্রজনন করে। যা দেশীয় প্রজাতির মাছের জন্য হুমকি ছিলো। তাই দ্রুতরাতেই পানি সেচের মাধ্যমে আরো দুইশ কেজি আফ্রিকান মাগুর মাছ পুকুর থেকে ধরা হয়। ওইসব মাছ আহরনযোগ্য ছিলো না। তাই ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে ধ্বংস করা হয়।
মৎস্য কর্মকর্তা বলেন, আফ্রিকান মাগুর চাষ, আহরন, বিক্রয় ও পরিবহন নিষিদ্ধ। মানুষ এ মাছের ভয়াবহতা ও নিষিদ্ধতা সম্পর্কে জানে না। বিষয়টি জানানোর জন্য তাৎক্ষনিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আশাকরি এখন থেকে কেউ গোপনেও এ মাছ চাষ, ক্রয়-বিক্রয় ও পরিবহন করবে না। ভবিষ্যতে যেন না করে সেই জন্য মাছ চাষী মোতাহার কবিরাজকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT