খেলার মাঠের পাশের জলাশয়ে ভরাট করে হচ্ছে ৬ তলা ভবন ! খেলার মাঠের পাশের জলাশয়ে ভরাট করে হচ্ছে ৬ তলা ভবন ! - ajkerparibartan.com
খেলার মাঠের পাশের জলাশয়ে ভরাট করে হচ্ছে ৬ তলা ভবন !

4:13 pm , June 2, 2024

সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজে

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ বরিশাল মহানগরীর সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ কর্তৃপক্ষ খেলার মাঠের পাশের একটি জলাশয় ভরাট করে সরকারী প্রায় সোয়া ১০ কোটি টাকা ব্যায়ে ৬তলা বিজ্ঞান ভবনের নির্মান কাজ শুরু করতে যাচ্ছে। ফলে পুরো খেলার মাঠ থেকে শুরু করে কলেজ ক্যাম্পাসে জলাবদ্ধতা স্থায়ী রুপ লাভ করবে বলে মনে করছেন সচেতন মহল। গত ২৬-২৭ মে ঘূর্ণিঝড় রিমেল’এ ভর করে ৩৬ ঘন্টায় বরিশাল মহানগরীতে প্রায় দেড়শ মিলিমটার বৃষ্টিতে পুরো কলেজ ক্যম্পাস সহ খেলার মাঠটি প্লাবিত হবার পাশাপাশি জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে। টানা ৭২ ঘন্টা পরে কলেজ ক্যাম্পাস সহ খেলার মাঠটি জেগে উঠলেও জলাবদ্ধতার মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যেই কোন ধরনের পয়ঃনিষ্কাষনের ব্যবস্থা না করেই জলাশয় ভরাট করে বিশাল এ ভবন নির্মানকে আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন সচেতন মহল। ইতোমধ্যে প্রায় ৮ হাজার বর্গফুটের নির্মানাধীন ৬তলা ভবনটির জন্য ‘টেষ্ট পাইল’ সম্পন্ন করে ‘লোড টেষ্ট’এর কাজ শুরু হয়েছে। ইতোপূর্বে একই জলাশয় ভরাট করে ৬ তলা ভীতের ওপর আরো একটি একতলা ভবন নির্মান করা হয়েছে।
সরকারের ‘ উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান শিক্ষা সম্প্রসারণ প্রকল্প’র আওতায় বরিশাল মহানগরীর সরকারী বরিশাল কলেজ, সরকারী মহিলা কলেজ ও সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ’এ একটি করে বিজ্ঞান ভবন নির্মানের লক্ষ্যে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর নির্মান প্রতিষ্ঠান নিয়োগ করেছে।
ইতোমধ্যে সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের একমাত্র খেলার মাঠটির উত্তর প্রান্তের বিশাল জলাশয়টি ভরাট করে প্রায় সাড়ে ১০ কোটি টাকা ব্যায়ে এ বিজ্ঞান ভবন নির্মান কাজ শুরুর লক্ষ্যে প্রাক-প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। এ বিষয়ে কলেজ অধ্যক্ষ মোস্তফা কামালের সাথে আলাপ করা হলে তিনি জলাশয় ভরাট করে বিজ্ঞান ভবন নির্মাণের কথা স্বীকার করে বলেন,  ক্যম্পাসে জায়গা না থাকায় কোন বিকল্প ছিলো না। পাশাপাশি ভবিষ্যতে সিটি করপোরেশন বা অন্য যেকোন উপায়ে ক্যাম্পাসের পয়ঃনিষ্কাষন ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটলে বর্তমান সংকটজনক পরিস্থিতি থাকবেনা।
শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল সূত্র হাতেম আলী কলেজ ক্যম্পাসে জলাবদ্ধতার কথা অস্বীকার না করলেও কলেজ কর্তৃপক্ষ যে স্থান নির্বাচন করেছেন, সেখানেই তারা ভবনটি নির্মান করছেন’ বলে জানান হয়।
তবে পরিবেশকে বিবেচনায় না নিয়ে অপরিকল্পিতভাবে একের পর এক ভবন নির্মানের ফলে  সরকারী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির একমাত্র খেলার মাঠটি সহ পুরো ক্যাম্পাস ভয়াবহ জলাবদ্ধতার মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে বলে দাবী পরিবেশবাদীদের। জনগনের টাকায় সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিবেশ বিপন্নকারী অবকাঠামো নির্মাণকে গণবিরোধী বলে অবিহিত করে একাধীক পরিবেশবাদী নেতা। একই সাথে ক্যাম্পাসের পুরনো লাইব্রেরী ভবনটির পশ্চিম পাশের খালি জমিতে এ ধরনের ভবন নির্মানের বিষয়টি বিবেচনার দাবী করেছেন একাধিক শিক্ষার্থী।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT