বরিশালে রিমেলের জলোচ্ছ্বাসে বিএডিসি’র হাজার টন সার বিনষ্ট বরিশালে রিমেলের জলোচ্ছ্বাসে বিএডিসি’র হাজার টন সার বিনষ্ট - ajkerparibartan.com
বরিশালে রিমেলের জলোচ্ছ্বাসে বিএডিসি’র হাজার টন সার বিনষ্ট

4:09 pm , May 29, 2024

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ ঘূর্ণিঝড় রিমেলে  ভর করে ফুসে ওঠা কীর্তনখোলা নদীর  জলোচ্ছ্বাসে বরিশালে বিএডিসি’র সার গুদামের প্রায় হাজার টন ইউরিয়া, ডিএপি, এমওপি ও টিএসপি সার বিনষ্ট হয়েছে। বরিশাল বন্দর সংলগ্ন ‘কেডিসি গুদাম’ খ্যাত দুটি সুরক্ষিত সংরক্ষণাগারে সোমবার রাতের প্রথম প্রহর থেকে মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে এসব সার বিনষ্ট করে। ক্ষতিগ্রস্ত সারের দাম প্রায় আড়াই কোটি টাকা বলে জানা গেছে।
প্লবিত সারের মধ্যে প্রায় ৬শ টন ইউরিয়া এবং অবশিষ্ট ৪শ টনের মত নন ইউরয়া সার  রয়েছে বলে জনা গেছে। দুটি সুরক্ষিত সার গুদামের ৩০টি করে স্তরে ৫০ কেজি করে এসব সারের বস্তা সাজান ছিল। যার অন্তত ৩টি স্তর জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়। ১৯৮১-৮৫ সালের মধ্যে কোরীয় সরকারের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় নির্মিত প্রতিটি ৫ হাজার টন ধারন ক্ষমতার এসব সার গুদামের অভ্যন্তরে এই প্রথমবারের মতে জলোচ্ছ্বাসের পানি প্রবেশ করল।
বিএডিসি’র দায়িত্বশীল সূত্রের মতে, ১৯৯১’এর ২৯ এপ্রিলের ভয়াল ঘূর্ণিঝড় সহ ২০০৭-এর ১৫ নভেম্বরের স্মরণকালের ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় ‘সিডর’এর তান্ডবের সময়ও বরিশালের এসব গুদামের সার সম্পূর্ণ সুরক্ষিত থাকলেও রিমেল-এর ভয়াবহতা অতীতের সব রেকর্ড মুছে দিয়েছে।
বিএডিসি’র উচ্চ পর্যায়ের একটি তদন্ত টিম বুধবার বরিশালে পৌঁছে ক্ষয়ক্ষতি নিরুপন সহ এর কারণ ও প্রতিকারের বিষয়ে তদন্ত করে সংস্থার ঊর্ধ্বতন মহল সহ কৃষি মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন করবে বলে জানা গেছে।
তবে এ বিপুল পরমান সার প্লাবিত ও বিনষ্টের ফলে বাজারে সারের যোগানে কোন ঘাটতি হবে না বলে বিএডিসি’র দায়িত্বশীল সূত্রে দাবী করা হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT