ফরচুন সু-কোম্পানীতে ৫ শ্রমিক গুলিবিদ্ধ ফরচুন সু-কোম্পানীতে ৫ শ্রমিক গুলিবিদ্ধ - ajkerparibartan.com
ফরচুন সু-কোম্পানীতে ৫ শ্রমিক গুলিবিদ্ধ

3:52 pm , May 23, 2024

দুই মাসের বেতন বকেয়া ॥ দফায় দফায় হামলা-ভাংচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ফরচুন সু কোম্পানীর শ্রমিকদের বকেয়া বেতন নিয়ে দ্বন্দ্বে আনসারদের সাথে শ্রমিকদের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় আনসার সদস্যদের লাঠিপেটা ও রাবার বুলেটে অর্ধশতাধিক শ্রমিক আহত হয়েছে। রাবার বুলেটবিদ্ধ ৫ শ্রমিককে গুরুতর আহত অবস্থায় বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শ্রমিকদের নিক্ষিপ্ত ইটে আহত হয়েছেন মহানগর পুলিশের কাউনিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান। বৃহস্পতিবার দুপুর তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
আহত শ্রমিকরা হলেন : উজিরপুরের নারায়নপুর এলাকার হানিফ সরদারের ছেলে মেহেদি (২৫), বাবুগঞ্জের রহমতপুর এলাকার মো. মোস্তফার ছেলে রাজিব (২৫), স্বরুপকাঠির মো. শামসুদ্দোহার ছেলে তামিম (২০), নলছিটির গোবিন্দপুর গ্রামের মো. খোকনের ছেলে রাফসান (২০) ও গাইবান্ধার রসুলপুরের মিজানুর রহমান (২০)। শ্রমিক হাফিজুল বলেন, দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। বৃহস্পতিবার আমাদের ১৫ দিনের বেতন দিছে। শ্রমিকরা বলছে পুরো বেতন লাগবে। এ মাসে না,পরে দেখা যাবে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ফ্যাক্টরির কর্মকর্তারা শ্রমিকদের মেরেছে। আমরা প্রতিবাদ করলে আনসাররা গুলি করে। সকল শ্রমিকদের মারধর করেছে।
হাফিজুলের দাবি তিন ফ্যাক্টরির অন্তত দুইশ শ্রমিক আহত হয়েছে। তারা ফরচুন সু কোম্পানীর চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজানের ভয়ে অনেকে হাসপাতালে আসেনি।
ফ্যাক্টরির সামনে থাকা নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আউয়াল মোল্লা বলেন, ফরচুনের বিভিন্ন দেশের সাথে  ব্যবসা রয়েছে। সেখান থেকে টাকা পেয়ে বেতন দেয়। বেতনভাতা নিয়ে একটা ঘটনা ঘটেছে। ১৫ দিনের বেতন দিছে। ওই টাকা দিয়ে কি করবে। বেতন ঠিকমতো না দেয়ায় শ্রমিকরা আন্দোলন শুরু করেছে।
কাউন্সিলরের অভিযোগ শ্রমিকরা ঠিকমতো বেতনও পায়না, বোনাসও পায় না। তাদের ওভার টাইমও দেয় না। চারজন মেডিকেল ভর্তি হয়েছে। আরো কয়েকজন আহত হয়েছে। প্রকৃত সংখ্যা জানা নেই।
এ সময় আউয়াল মোল্লা মুঠোফোনে মালিক পক্ষের সাথেও কথা বলেন। তখন তিনি বলেন, ‘হিসাব দেইখ্যা একটা ব্যবস্থা করেন। ওরা যাতে ওভার টাইম পায়, সেইটার ব্যবস্থা করেন। সিদ্ধান্ত নিয়ে জানান।
ফ্যাক্টরির সামনে অবস্থান নেয়া শ্রমিক আহাদ বলেন, গত মাসের বেতন এখন পর্যন্ত পাই নাই। আজ হাফ বেতন দেছে। একটা মানুষ কেমনে চলে। তারপর শ্রমিকরা বাইরে বের হইছে। আনসাররা লাঠিচার্জ করছে। রাবার বুলেট মারছে।
মহানগর পুলিশের কাউনিয়া থানার ওসি আসাদুজ্জামান জানান, শ্রমিকদের নিক্ষিপ্ত ইটের আঘাতে পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান আহত হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত আছে। মালিক পক্ষের সাথে কথা বলেছি। তারা উপযুক্ত প্রতিনিধি পাঠালে তাদের ও শ্রমিকদের নিয়ে আলোচনা করে সমাধানের চেষ্টা করবো।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা ফ্যাক্টরির সামনে রাখা বাস ও কাভার্ড ভ্যান ভাংচুর করেছে। ফ্যাক্টরির বাইরে গ্লাস ভাংচুর করেছে। একটি ফ্যাক্টরির সামনে গেলে নিরাপত্তা প্রহরী নিজের নাম প্রকাশ না করে বলেন, ফ্যাক্টরিতে কেউ নেই। যা ভাংচুর করেছে বাইরে করেছে। ভিতরে কিছু ভাংচুর করেনি। আনসার সদস্যরা নিরাপদে রয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT