শিশু সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন শিশু সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন - ajkerparibartan.com
শিশু সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন

4:29 pm , May 20, 2024

ভা-ারিয়ায় স্বামীর নির্যাতনের শিকার স্ত্রী

ভা-ারিয়া প্রতিবেদক ॥ ভা-ারিয়ায় স্বামীর কাছে অধিকার চাইতে গেলে তাসলিমা বেগম (৩৬) নামের এক স্ত্রীকে মারধর করে তার স্বামী । শুধু মারধর নয়, বাড়ি থেকে শিশু সহ তাকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই মা-শিশু ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে ভা-ারিয়া উপজেলার পশ্চিম পশারিবুনিয়া গ্রামে। ভুক্তভোগী তাসলিমা বেগম জানান, তার স্বামীর নাম শামীম শিকদার। তিনি ভা-ারিয়া উপজেলার পশ্চিম পশারিবুনিয়া গ্রামের মৃত হেমায়েত উদ্দিন শিকদারের ছেলে। গত ৩ বছর পূর্বে মোঃ শামীম শিকদারের সাথে বিবাহ হয় তার। বিবাহের পরে তাদের সংসারে সুখ শান্তিতে ভালই কেটে যায়। এই সংসারে একটি পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহণ করে । যার নাম সিয়াম সিকদার (১৬ মাস)। এই ভাবে কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পরে তার স্বামী তার নিকট যৌতুক দাবী করে এবং প্রতিনিয়ত তার সাথে খারাপ আচরন সহ মারপিট চালিয়ে আসছে। পরবর্তীতে তাকে স্বামী মারধর করে শিশু সহ বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেয়। তিনি আরো জানান, বারবার মারধর ও নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে পিরোজপুর বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে তাকে সহ কয়েকজনকে আসামী করে সম্প্রতি একটি মামলা দায়ের করি বর্তমানে তা চলমান রয়েছে। বর্তমানে বাড়ীঘর ছেড়ে বসবাস করছি। এছাড়াও তার স্বামীর নির্দেশে তাহার ভাই শাকিল সিকদার এবং মা ফিরোজা বেগমকে দিয়ে তাকে হুমকি দেয় এবং বলে যে, যদি তুই বাড়ীতে আসো তাহা হইলে তোকে খুন করে লাশ গুম করে ফেলবো। তাই সে ভয়ে স্বামীর বাড়ীতে যাইতে সাহস পায়নি। বর্তমানে আমার স্বামীর ঘর খানা তালাবদ্ধ করে রেখেছে। এ ঘটনার বিচার চেয়ে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত দরখাস্ত দিয়েছি। বর্তমানে পিতার বাড়ী নাবালক সন্তানকে নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি এবং বিচার পাওয়ার জন্য প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এই গৃহবধু। এ বিষয়ে তার স্বামী শামিম শিকদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্ত্রীকে তালাক দিয়েছি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT