নগরীর ফুড কিং রেস্তোরায় ক্রেতা আকর্ষণে প্রতারনার প্রচারনার অভিযোগ নগরীর ফুড কিং রেস্তোরায় ক্রেতা আকর্ষণে প্রতারনার প্রচারনার অভিযোগ - ajkerparibartan.com
নগরীর ফুড কিং রেস্তোরায় ক্রেতা আকর্ষণে প্রতারনার প্রচারনার অভিযোগ

4:25 pm , May 17, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর বটতলা এলাকার ফুড কিং রেস্টুরেন্টে ভুতের উপদ্রপের খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে ক্রেতা আকর্ষনের চেস্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারনে তৈরি  হওয়া একটি ঘটনার সিটি টিভি ফুটেজ রেস্টুরেন্টের ফেইসবুক পেইজে ছড়ানো হয়েছে ভৌতিক বিষয় সাজিয়ে। ভিডিওটি মঙ্গলবার রেস্টুরেন্টেরে নিজস্ব ফেইসবুক পেইজে আপলোড করা হয়। যা আজ শনিবার পর্যন্ত ১১ লাখ মানুষ দেখেছে। এই ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বরিশাল নগরীতে নানা ধরনের বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। কেউ কেউ একে ডি মার্কেটিং বা নিজেদের বিপরীত প্রচার বলে আখ্যা দিয়েছে। নগরীর বাসিন্দারা এমন চেষ্টার কারনে রেস্টুরেন্টটি বয়কট করার আহবান জানিয়েছে। অন্যদিকে ফেইসবুক পেইজে ফুড কিং রেস্টুরেন্টে ভুতের হানা এমন ক্যাপশন দিয়ে ভিডিওটি আপলোড করা হলেও রেস্টুরেন্টে কর্তৃপক্ষের দাবী এটা ভৌতিক ঘটনা না। মূলত কি কারনে এমন ঘটনা ঘটেছে সঠিক করে বলতে পারেনি রেস্টুরেন্টটির ব্যবস্থাপক মো. তাজিদুল ইসলাম। তিনি জানায়, গত ৩০ এপ্রিল দুপুর ২টা ৫ মিনিটে হঠাৎ রেস্টুরেন্টে চলমান একটি ফ্যান থেমে যায়। তার কিছুক্ষন পরেই ১১ নম্বর টেবিলের উপরের ঝুলন্ত লাইটটি অ-স্বাভাবিক ভাবে নড়তে শুরু করে। এভাবে কিছুক্ষন চলার পরে কোন কারন খুঁজে না পেয়ে ওই ফ্যান ও লাইটের বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন তারা। পুরো বিষয়টি তাদের সিসি টিভি ক্যামেরায় রেকর্ড হয়। কোন কারন চিন্তা না করেই অনেকটা মজার ছলে ভূতের উপদ্রপ ক্যাপশন দিয়ে ভিডিওটি তাদের অফিসিয়াল পেইজে আপলোড করা হয়। এটি কোন ধরনের ক্রেতা আকর্ষনের পদ্ধতি না বলে দাবী করেন রেস্টুরেন্টটির ব্যবস্থাপক মো. তাজিদুল ইসলাম। তবে ভিডিওটি ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলোধনা করা হচ্ছে তাদের। সরাসরি ধাপ্পাবাজি করে রেস্টুরেন্টের বেচা বিক্রি বাড়ানোর একটি সু-কৌশল হিসেবে বিষয়টিকে দেখছেন নেটিজেনরা। অনেকে এমন ঠকবাজির কারনে রেস্টুরেন্টটি বয়কট করার আহবান জানিয়েছে। অন্যান্য একাধিক চাইনিজ রেস্তোরার সংশ্লিষ্টদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে ফুড কিং রেস্টুরেন্টটি শুরুর পর থেকেই ক্রেতা আকর্ষন করতে বিভিন্ন সময় নানা ধরনের ঠকবাজির আশ্রয় নিয়েছে। কখনো মানহীন খাবারের লোভনীয় অফার, কখনো আবার বিশেষ মূল্য ছাড়। এ ধরনের পদ্ধতি অবলম্বন করেই বিভিন্ন সময় আলোচনায় এসেছে রেস্টুরেন্টটি। সর্বশেষ ভুতের হানা দেয়ার ঠকবাজির ঘটনাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে বরিশালের বাসিন্দাদের নজরে আসার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করে অন্যান্য রেস্টুরেন্টের সংশ্লিষ্টরা।
উল্লেখ্য বিগত ৭-৮ বছরে বরিশাল নগরীতে তৈরি হয়েছে অসংখ্য চাইনিজ রেস্তোরা। এসকল রেস্তোরা বেশির ভাগেই নেই খাবারের কোন মান। তাই মানহীন খাবার নিয়ে প্রতিযোগীতায় এগিয়ে যেতে এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে অভিনব ধাপ্পাবাজি শুরু করেছে রেস্তোরা গুলোর অনেকেই। নিজের দোষ জাহির করেও ভাইরাল হয়ে ক্রেতা আকর্ষনের চেষ্টা করছে তারা।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT