গৌরনদীতে অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল, মাছ লুট গৌরনদীতে অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল, মাছ লুট - ajkerparibartan.com
গৌরনদীতে অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল, মাছ লুট

4:27 pm , May 13, 2024

গৌরনদী প্রতিবেদক ॥ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের খাঞ্জাপুর গ্রামের অসহায় বৃদ্ধ বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের (৭৫) জমি দখল ও পুকরের মাছ লুট করে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় রোববার গৌরনদী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
জানাগেছে, গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের খাঞ্জাপুর মৌজায় ২০ শতাংশ জমি খাঞ্জাপুর গ্রামের মৃত হাজী মোসলেম উদ্দিন হাওলাদারের পুত্র নূর মোহাম্মদ হাওলাদার বিক্রির জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের কাছে প্রস্তাব দেন। ২০২১ সালে বীর নুরুল ইসলাম তার বসতঘরের পিছনের ২০ শতাংশ জমি নিজ পুত্র মহসীনের নামে গৌরনদী সাব রেজিস্ট্রার অফিসের মাধ্যমে সাব-কবলা দলিল মূলে ক্রয় করেন। গ্রামের বাসিন্দারা জানান, ২০২১ সালে জমির দাতা নূর মোহাম্মদ হাওলাদার গৃহীতা মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামকে জমি দখল বুঝিয়ে দেন। সেই থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম জমি ভোগ দখল করে আসছেন এবং পুকুরে মাছ চাষ করেছেন।  বর্তমানে বাধ্যর্কজনিত কারনে নুরুল ইসলাম খুবই অসুস্থ। এ অবস্থায় প্রতিবেশী একই গ্রামের প্রভাবশালী ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা আমীর সরদারের ছেলে মোঃ রাসেল সরদার (৩২) ও তার ভাই জাহিদ সরদার (২৭) গায়ের জোরে বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল করে নেন।
মুক্তিযোদ্ধার পুত্রবধূ সিমু আক্তার অভিযোগ করে বলেন, আমার শ্বশুর নুরুল ইসলাম একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। বর্তমানে তিনি বার্ধক্যজনিত কারনে অসুস্থ ও চলাফেরা করতে অক্ষম। তার ছেলে মহসীন বাড়িতে থাকেন না। এই অসহায় অবস্থায় সম্প্রতি সময়ে (গত বুধবার) প্রভাবশালী রাসেল সরদার ও তার ভাই জাহিদ সরদার সন্ত্রাসীদের নিয়ে জমি পরিমাপের নামে আমার  জমিতে পিলার দিয়ে জোরপূর্বক জমি দখল করে নেন। জমি দখল নেওযার পরের দিন ওই সন্ত্রাসীরা আমার পুকুরের মাছ ধরে নিয়ে যায়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমি রাসেল, জাহিদ সরদারের কাছে বহু অনুনয় বিনয় করে বলেছি ‘আমার স্বামী বাড়িতে আসলে তাকে নিয়ে জমি পরিমাপ করে তারপর জমি দখল নেন। কিন্তু তারা আমার কোন কথা শোনেনি।
অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে রাসেল সরদার ও জাহিদ সরদার বলেন, আমরা দুই মাস আগে ৪ শতাংশ জমি ক্রয় করেছি। নুরুল ইসলামের ছেলে মহসীন আমাকে জমি মেপে দেওয়ার কথা বললেও না দেয়ায় আমরা ক্রয়কৃত জমি বুঝে নিয়েছি। জমি পরিমাপ করার সময় প্রতিবেশী মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামকে অবহিত না করে একাকি  জমি দখল নেওয়া প্রসঙ্গে বলেন, তাদের বলা হয়েছে। মাছ লুট প্রসঙ্গে বলেন, আমরা কোন মাছ লুট করিনি। মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের পুত্রবধূ মাছ বিক্রি করেছে। এ প্রসঙ্গে গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মোঃ মাজাহারুল ইসলাম বলেন, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পরে বিষয়টি তদন্তের জন্য একজন এসআইকে পাঠানো হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT