প্রবাসীর স্ত্রীকে রাতভর নির্যাতন প্রবাসীর স্ত্রীকে রাতভর নির্যাতন - ajkerparibartan.com
প্রবাসীর স্ত্রীকে রাতভর নির্যাতন

4:24 pm , May 12, 2024

ঝালকাঠি প্রতিবেদক ॥ ঝালকাঠির নলছিটিতে যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার প্রবাসী স্বামীর বিরুদ্ধে। উপজেলার নাচনমহল ইউনিয়নের কুড়ালিয়া গ্রামে গত শনিবার(১১মে) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় রবিবার সকাল ১০টায় স্বামীর বাড়ি থেকে নাছিমা বেগম কৌশলে পালিয়ে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করেন। তার স্বাস্থ্যের অবস্থা অবনতি হওয়ায় রবিবার বিকেল ৪টায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিমে প্রেরণ করা হয়। এ ব্যাপারে নাছিমা বেগমের বড় ভাই আলাউদ্দিন হাওলাদার নলছিটি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় তার স্বামী আবদুল্লাহ ওরফে রানাকে আটক করেছে পুলিশ।
অভিযোগসূত্রে জানা যায়, নাচনমহল ইউনিয়নের দক্ষিণ ভবানীপুর গ্রামের তৈয়ব আলী হাওলাদারের কন্যা নাছিমা বেগমের সাথে একই ইউনিয়নের কুড়ালিয়া গ্রামের মো. আনোয়ার হাওলাদারের পুত্র মো. রানার সাথে ৭ বছর পুর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের ২ বছর পর নাছিমা বেগম তার স্বামী মো. রানাকে প্রবাসে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তারা ১০ এপ্রিল ছুটিতে নিজ বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। বাড়ীতে আসার পর স্বামী রানা স্ত্রী নাছিমার কাছ থেকে নতুন ঘর নির্মানের কথা বলে ৬ লক্ষ টাকা নেন। এরপর আবারও টাকা চাইলে নাছিমা তা দিতে অস্বীকার করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রানা ও তার পরিবারের লোকজন মিলে গত শনিবার রাতে আনুমানিক নাছিমাকে  মারধর করে একটি কক্ষে আটকে রাখেন। টাকা দিতে অস্বীকার করলে নির্যাতনের মাত্রা আরও বেড়ে যায়।
নাছিমার ভাই আলাউদ্দিন জানান, আমার বোনকে প্রবাসে থাকাকালীন সময়েও বিভিন্নভাবে অত্যাচার করতো । বোনের টাকা পয়সা নিয়ে যেতো। দেশে এসেও একবার টাকা নিয়েছে জমি ও নতুন ঘর নির্মানের কথা বলে। কিন্তু কোন কিছুই করেনি। এখন আমার বোনের ব্যাংক একাউন্টে কিছু টাকা আছে সেই টাকা আত্মসাৎ করার জন্য আমার বোনের উপর তারা অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। গত শনিবার আমার বোনকে মেরে তারা আটকে রাখে। পরে সে বাথরুমে যাওয়ার কথা বলে কোন রকম রাস্তায় এসে এক রিকশাওয়ালার সহায়তায় আমাদের কাছে পৌঁছায়।
নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুরাদ আলী জানান, এ ঘটনায় আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। ভুক্তভোগীর স্বামী রানা থানা পুলিশের হেফাজতে আছে। এখন আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT