স্কুল খোলার প্রথম দিন ॥ বার বার পানি খেয়ে ক্লাশ করেছে শিক্ষার্থীরা স্কুল খোলার প্রথম দিন ॥ বার বার পানি খেয়ে ক্লাশ করেছে শিক্ষার্থীরা - ajkerparibartan.com
স্কুল খোলার প্রথম দিন ॥ বার বার পানি খেয়ে ক্লাশ করেছে শিক্ষার্থীরা

4:10 pm , April 28, 2024

হেলাল উদ্দিন ॥ পবিত্র রমজান, ঈদুল ফিতর এবং গরমের কারণে এক সপ্তাহের ছুটি মিলিয়ে মোট এক মাস ৩ দিন পর সারা দেশের ন্যায় বরিশালে খুলেছে প্রাথমিক স্কুলগুলো। তবে প্রচন্ড তাপদাহে অনেকটা দিশেহারা, বিচলিত ও চিন্তিত ছিলো শিক্ষার্র্থী ও অভিভাবকরা। স্কুলে প্রবেশের সময় প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে হাতে করে পানির বোতল সাথে নিয়ে প্রবেশ করতে দেখা গেছে। এছাড়া অধিকাংশ শিক্ষার্থীদের সাথে ছিলো ছাতা। স্বস্তির খবর হলো প্রকট এই তাপমাত্রার মধ্যে বরিশাল জেলায় একজনও শিক্ষার্থী অসুস্থ হবার খবর পাওয়া যায়নি। বরিশাল সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল বলেন, তীব্র এই তাপমাত্রার মধ্যে স্কুল খোলার নির্দেশনা আসায় আমরা বাড়তি সর্তক ছিলাম। প্রত্যেকটি স্কুলে খাবার পানি, স্যালাইন রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছিলো। জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে অনেকগুলো টিম অধিকাংশ স্কুল সরেজমিনে পরিদর্শন করেছে। কোন স্থান থেকে শিক্ষার্থী অসুস্থ হবার খবর পাইনি। সরেজমিনে বরিশাল বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, জিলা স্কুলসহ নগরীর একাধিক স্কুলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সবর উপস্থিতি দেখা গেছে। প্রায় প্রতিটি স্কুলে স্কুল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সুপেয় খাবার পানির ব্যবস্থা করার চিত্র পরিলক্ষিত হয়েছে। শিক্ষার্থীরা কিছুক্ষন পর পরই স্কুল থেকে পানি সংগ্রহ করে পানি পান করেছে। অনেকে মাথা ও মুখমন্ডলও ধৌত করেছে। স্কুলটির ছাত্রীরা বলেন, এত গরমের মধ্যেও এতদিন পর স্কুল খোলায় আমি উচ্ছ্বসিত ছিলাম। অনেকদিন পর সবার সাথে দেখা হয়েছে। তারা বলেন স্কুল কর্তৃপক্ষ খাবার পানির ব্যবস্থা করায় আমরা খুব খুশি। তবে দুপুরের পর পানি শেষ হয়ে গিয়েছিলো। এছাড়া গরমে অন্য কোন সমস্যা হয়নি। বরিশাল সরকারী স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সালমা পারভীন বলেন এত গরমে স্কুল খোলার পরও উপস্থিতি স্বাভাবিক সময়ের মতই ছিলো। মনির্ং শিফটে পানির কোন সমস্যা হয়নি। তবে ডে শিফটে পানি শেষ হয়ে যাওয়ায় একটু সমস্যা হয়েছিলো। পানির লেয়ার নিচে নেমে যাওয়ায় দুপুরের পর পানি উত্তোলন করা সম্ভব হয়নি। তবে আমরা বিকল্প পদ্ধতিতে পানির ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি। দু এক দিনের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে। এছাড়া প্রথম দিনে তেমন কোন সমস্যা হয়নি বলে জানান তিনি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT