যানজট নিয়ন্ত্রণে মেট্রোপলিটন পুলিশের কঠোর পদক্ষেপ যানজট নিয়ন্ত্রণে মেট্রোপলিটন পুলিশের কঠোর পদক্ষেপ - ajkerparibartan.com
যানজট নিয়ন্ত্রণে মেট্রোপলিটন পুলিশের কঠোর পদক্ষেপ

3:57 pm , April 5, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর বটতলা মোড় থেকে সদর রোড কিংবা পুলিশ লাইন থেকে জিলাস্কুলের সামনে দিয়ে সদর রোডে প্রবেশের আর উপায় নেই। পুলিশের ব্যারিকেড বেশিরভাগ যানবাহন বিশেষ করে থ্রি-হুইলার, ইজিবাইক, সিএনজি অটোরিকশা ও মাহেন্দ্রগুলোকে ঘুরিয়ে দিচ্ছেন। লঞ্চঘাট যেতে হলেও এখন থেকে ঈদের দিন পর্যন্ত বিকল্প পথে শের ই বাংলা মেডিকেলের সামনে দিয়ে কিংবা কাটপট্টি থেকে পোর্ট রোড হয়ে যেতে হবে সবাইকে। তবে পায়েচলা পথ সকলের জন্য উম্মুক্ত। উম্মুক্ত জরুরী সেবামূলক যানবাহন। গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে এই নির্দেশ জারী করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার জিহাদুল কবির। ৫ এপ্রিল শুক্রবার সকালে বরিশালের চৌকস এই পুলিশ কর্মকর্তা  ট্রাফিক পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার তানভীর আরাফাতকে সাথে নিয়ে  নিজেই ঘুরে ঘুরে দেখেন যানজটের পরিস্থিতি। এসময় রুপাতলী গোলচত্বর, লঞ্চঘাট ও নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ডে পুলিশ কন্ট্রোল রুমের তদারকি করেন। পুলিশ কমিশনারের গৃহীত এই পদক্ষেপে যানজট কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে মনে করেন নগরবাসীর অনেকেই। তবে সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে এরফলে নগরবাসী পুলিশের দেয়া নিরাপত্তা সুবিধা পাচ্ছে ঈদের দীর্ঘ ছুটিতে। এদিকে সদর রোডের শপিংমল ও চকবাজারের পোশাকপাড়া কিংবা মহসিন মার্কেটে যেতে যানজটের ভোগান্তি নেই। কেননা জেলখানা মোড় থেকেও একই রকম ব্যারিকেড দেয়া আছে। ফলে এদিকটায় এখন যানজটমুক্ত। সবজট এখন অবশ্য নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকায়। এ কারণে পুলিশের নজরদারি সেদিকেই বেশি এখন। অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আলী আশরাফ এবং অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার ফজলুল করিমকে সাথে নিয়ে নথুল্লাবাদ কন্ট্রোল রুমে দাঁড়িয়ে পুলিশ কমিশনার জিহাদুল করির নিজেই কিছুক্ষণ যানজট পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন। এরপর একান্ত সাক্ষাতে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার জিহাদুল কবির বলেন, আমি সবাইকে নিয়ে বরিশালের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো রাখতে চাই। এক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা চাই। আমার মাধ্যমে জনসাধারণ তাদের কাজ আদায় করে নিতে পারবে। আমি চাই বরিশাল থেকে চলে যাওয়ার পরও আমার পায়ের ছাপ এ অঞ্চলে পড়ে থাকুক। জিহাদুল কবির বলেন, বরিশালের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেক ভালো আছে। নগরীতে কিছু সমস্যা আছে, যার মধ্যে যানজট ও ইভটিজিং নিয়ন্ত্রণে ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। আমাদের গোয়েন্দা পুলিশের কয়েকটি টিম বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র ঘুরে তথ্য সংগ্রহ করেছে। স্কুলের সময় যারা পার্কে ঘুরে বেড়াবে তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। পাশাপাশি যানজট ও ইভটিজারমুক্ত বরিশাল গড়তে পুলিশ কাজ করছে বলে জানান জিহাদুল কবীর।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT