বাউফলে লাগামহীন নিত্য পণ্যের দাম বাউফলে লাগামহীন নিত্য পণ্যের দাম - ajkerparibartan.com
বাউফলে লাগামহীন নিত্য পণ্যের দাম

3:51 pm , January 29, 2024

বাউফল প্রতিবেদক ॥ বাউফলে লাগামহীনভাবে বেড়েই চলছে নিত্য পণ্যের দাম। ফলে দিশেহারা নি¤œ ও মধ্যবিত্তরা।  চাল থেকে শুরু করে ব্রয়লার মুরগি, ডিম, আদা-রসুন, চিনি বাড়তি দরে কিনতে হচ্ছে। মাছ ও গরুর মাংসের দাম ক্রেতার নাগালের বাইরে চলে গেছে। শুধু তাই নয় দাম এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, শাক-সবজিতেও হাত দেওয়া যাচ্ছে না। বাজারে শীতকালীন সবজি থাকলেও আগের সেই চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে। বছরের পর বছর অসাধু ব্যবসায়ীদের ‘সিন্ডিকেট’ সক্রিয় থাকলেও কার্যকর অর্থে তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছেনা। বাউফল সদর ইউনিয়নে বিলবিলাস বাজারে আসা ক্রেতা শেখ মোঃ খোরশেদ আলম বলেন, ডিমের দাম তো বলে ১৪৫ টাকা ডজন। কিন্তু যদি একটু বড় ডিম নিতে চাই তখন ১৫০ টাকা করে নিতে হয়। যেভাবে সব কিছুর দাম বাড়ছে সেভাবে তো আমাদের অবস্থার পরিবর্তন হয়নি। শুধু খরচের পরিমাণ বেড়েই চলছে।
সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) হিসাবে এ অঞ্চলে মোটা চাল, প্যাকেটজাত আটা, ময়দা, মসুর ও মুগ ডাল, পেঁয়াজ, রসুন, আদাসহ ৪ ধরনের মসলা ও ব্রয়লার মুরগি এই ১৩টি পণ্যের দাম বেড়েছে। কোনো ক্ষেত্রে ২ টাকা, কোনো ক্ষেত্রে ৫০ টাকা। কিছুটা কমেছে আলু ও জিরার দাম। বাজারে গত কয়েকদিনে চালের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে।
কালাইয়া বাজারে বাজার করতে আসা আরেক ক্রেতা মো. হাবিবুর। তিনি পেশায় রিক্সা চালক। তিনি বলেন, সবকিছুর দাম যেভাবে বাড়ছে তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে আর চলতে পারছি না। দিন দিন খরচ বাড়ছে। যে কয় টাকা আয় করি তা দিয়ে সংসার চালাতে খুবই কষ্ট হয়।
মোহাম্মাদ কাজী নামে এক ব্যবসায়ী এসেছিলেন বাজার করতে। রসুন কেনার সময় কথা হয় তার সাথে। তিনি বলেন, কয়েকদিন আগেও তো দেশি রসুন ২০০ টাকায় কিনলাম, এখন তা ২৪০ টাকা করে বলছে। এভাবে হলে আমরা কোথায় যাব? কি খাবো?
নিত্যপণ্য কিনতে আসা দিনমজুর খলিল মিয়া বলেন, নিত্যপণ্যের যেভাবে দাম বাড়ছে আর আমি যে কয়টাকা আয় করছি, তা দিয়ে এখন আমি সব খরচ বহন করতে পারছি না

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT