ষাটোর্ধ্ব আয়েশার কপালে আজও জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড ষাটোর্ধ্ব আয়েশার কপালে আজও জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড - ajkerparibartan.com
ষাটোর্ধ্ব আয়েশার কপালে আজও জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড

3:48 pm , January 23, 2024

আরিফ আহমেদ, বিশেষ প্রতিবেদক ॥ বরিশাল নগরীর ১০ নম্বর ওয়োর্ডের বাসিন্দা আয়েশা বেগম। স্বামী মৃত মকবুল হাওলাদার। আদি বাড়ি কড়াপুর ইউনিয়নে হলেও গত ত্রিশ বছরের বেশি সময় ধরে ১০ নং ওয়ার্ড কেডিসি কলোনীতে বসবাস করেন। দ্বারে দ্বারে ঘুরে ভিক্ষা করেই চলছে জীবিকা। হাঁটতে চলতে খুবই কষ্ট। দু-পা হাটেন এক-পা বসে থাকেন। পিছন থেকে তার হাঁটা দেখে মনে হবে এখনই বুঝি পড়ে যাবেন তিনি। শনিবার বিকালে জিলাস্কুলের সামনের চায়ের দোকানে ভিক্ষা চাইতে এসে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন।  দ্রুত তাকে দোকানের বেঞ্চে বসিয়ে দিলো কয়েকজন রিকশাচালক ও চা দোকানের কর্মচারী । জানা গেল, সকাল থেকে কোনো দানাপানি পড়েনি পেটে। চা দোকানের সুমন ও জসিম ছুটে এসে কলা ও পাউরুটি খেতে দিল তাকে। সাথে চাও দিলো সুমন।
৭০ বছরের বেশি বয়স হলেও নিজের বয়স সম্পর্কে কিছুই বলতে পারেননা তিনি। কারণ, তাদের সময়ে জন্ম সন, তারিখ ধরে রাখতে কোনো উদ্যোগ ছিলোনা। যুদ্ধের আগে জন্মছেন তিনি। কোন যুদ্ধ প্রশ্ন করলে বলেন, ‘বড় যুদ্ধের আগে, হেরপর বইন্যা দেখেছেন। এ হিসেবে ৬০ বছল পার করেছেন অনেক আগে। এখনো বয়স্ক ভাতা জোটেনি তার কপালে। সাবেক কাউন্সিলর এটিএম শহীদুল্লাহ কবির এবং বর্তমান কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন কয়েকবার নাম-ঠিকানা, ভোটার কার্ডের কপি নিয়ে গেছেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত কিছুই করেননি কেউ।
আয়েশা বেগম এর মতো নগরীতে এরকম আরো প্রায় ৭০-৮০ জন বয়স্ক প্রতিবন্ধী  রয়েছেন বলে জানালেন পরিবেশ আন্দোলনের নেতা ও বরিশাল সাহিত্য সংসদ এর সহসভাপতি কাজী মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, এদের বেশিরভাগ ভাসমান হওয়ার কারণেই হয়তো এরা ভাতা বঞ্চিত হচ্ছে। তাই এদের সবাইকে নির্দিষ্ট একটি স্থানে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা খুবই জরুরী। সরকারের সমাজসেবা দপ্তরের ভূমিকা এখানে খুবই জরুরী।
বরিশাল জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক জাবীর হোসেন বলেন, দেখতে অনেক বয়স্ক মনে হলেও এনআইডি কার্ড অনুযায়ী ৬২ পার না হলে তিনি বয়স্ক ভাতার আওতায় আসবেন না। তবে জেলা সমাজসেবা দপ্তরের বয়স্ক পুনর্বাসনের আওতায় এদের আনার জন্য একটা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। খুব শীঘ্রই সবাইকে এর আওতায় আনা হবে বলে জানান জাবীর হোসেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT