জামিন মেলেনি মনিরুজ্জামান ফারুকের জামিন মেলেনি মনিরুজ্জামান ফারুকের - ajkerparibartan.com
জামিন মেলেনি মনিরুজ্জামান ফারুকের

3:28 pm , January 10, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালের একটি ও ঢাকায় দায়ের করা ২টি মামলায় গত ২ মাস ধরে কারাগারে আছেন বরিশাল মহানগর বিএনপির আহবায়ক মনিরুজ্জামান ফারুক। বরিশালে বিস্ফারক মামলায় সম্প্রতি তিনি উচ্চাদালত থেকে জামিন পেলেও ঢাকার দুই মামলায় জামিন না হওয়ায় কারামুক্ত হতে পারছেন না তিনি। যে কারণে প্রত্যেক মাসে ঢাকা ও বরিশাল মিলিয়ে একাধিকবার আদালতে হাজির হতে হচ্ছে তাকে। প্রতিবারই হাজিরার সময় ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করছে। গতকাল বুধবার বরিশালের মামলায় জামিনে থাকলেও হাজিরার নির্ধারিত তারিখ ছিলো। এ কারণে গতকাল তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এসময় তাকে ডান্ডাবেড়ি পরিহিত অবস্থায় দেখা গেছে। তার পরিবার ও দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ‘যে মামলায় মনিরুজ্জামান ফারুক কে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে তাতে প্রথম দুই মাসেও জামিন না হওয়ার কোন কারণ নেই। আদালতে হাজিরার সময় ডান্ডাবেড়ি পরানোরও কোন আইনী প্রয়োজন বা বাধ্যবাধকতা নেই।
মনিরুজ্জামান ফারুকের ছেলে শুভ বলেন, গত  ১ নভেম্বর অবরোধের পক্ষে মিছিল করার সময় বরিশালের সিএন্ডবি রোড থেকে আটক করা হয় তার বাবাকে। পরে একটি বিস্ফোরক মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এর পর পরই এক মামলার আসামী ফারুক রাতারাতি হয়ে যান আরো ২ মামলার আসামী। ২৮ অক্টোবর ঘটে যাওয়া ঢাকার নয়াপল্টনের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলায় তাকে আসামী করা হয়। ওই দুই মামলাও তাকে শোন এ্যারেস্ট দেখায় পল্টন থানা পুলিশ। ফলে বরিশালের মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন মিললেও ঢাকার মামলায় জামিন না হওয়ায় কারামুক্ত হতে পারেননি ফারুক।
মহানগর বিএনপির সদস্য (দপ্তরের দায়িত্বে থাকা) জাহিদুর রহমান রিপন বলেন, ফারুক ভাইয়ের সাথে যা ঘটছে তা অমানবিক। এটাকে আইনের শাসন বলে না। এমন কি অপরাধ  তাকে এই বৃদ্ধ বয়সে ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে আদালতে হাজির করতে হবে রাজনৈতিক মামলায় ২ মাসেও জামিন না হওয়াটা ন্যায় বিচার নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
বরিশাল মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মীর জাহিদুল কবীর জাহিদ বলেন, পুলিশ ,আদালত দেশের মানুষ সবাই জানে ফারুক ভাই তথা বিএনপির নেতাকর্মীদের যে সব মামলায় আসামী করা হচ্ছে তা কি ধরণের মামলা। তারপরও মাসের পর মাস পেরিয়ে গেলেও আদালতের জামিন না দেওয়া দুঃখজনক।  তিনি বলেন, ঢাকার দুই মামলায় ফারুক ভাই প্রথমে এজাহারভুক্ত আসামী ছিলেন না। পরে সরকারের উপর মহলের নির্দেশে পুলিশ তার নাম এজাহারে অন্তর্ভুক্ত করে। এমন উড়ো মামলায় আসামী হওয়ার পরেও দুই মাসেও জামিন না পাওয়ায় আমি হতাশা প্রকাশ করছি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT