ভোলা থেকে পাইপলাইনে বরিশালে গ্যাস আসবে ভোলা থেকে পাইপলাইনে বরিশালে গ্যাস আসবে - ajkerparibartan.com
ভোলা থেকে পাইপলাইনে বরিশালে গ্যাস আসবে

3:19 pm , December 29, 2023

বরিশালে বিশাল নির্বাচনী জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভবিষ্যতে ভোলা থেকে পাইপলাইনে বরিশালে গ্যাস দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তার আগে আপনাদের জন্য সুখবর হচ্ছে ভাঙ্গা থেকে বরিশাল ছয় লেনের আধুনিক মহাসড়ক তৈরি করা হবে। এজন্য ইতিমধ্যেই জমি অধিগ্রহণ কাজ শুরু করা হয়েছে। বরিশালের বঙ্গবন্ধু উদ্যানের বিশাল জনসভায় শুক্রবার বেলা তিনটায় উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপির অপশাসনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালে মানুষ আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে বাংলাদেশ এগিয়ে যায়। আজকের বাংলাদেশ বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপরেখা দিয়েছিলাম, কথা দিয়েছিলাম ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেব। কোনো ঘর অন্ধকারে থাকবে না। সেই কথা আমরা রেখেছি।আজকে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছি। দারিদ্র্য বিমোচন করেছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। শেখ হাসিনা বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের কৃষি, অর্থনীতি হবে স্মার্ট অর্থনীতি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুপুর ১টায় বরিশাল সার্কিট হাউজে পৌঁছান। এরপর বেলা তিনটায় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু উদ্যানের জনসভা মঞ্চে আসেন। এ সময় নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীকে স্লোগানে স্লোগানে স্বাগত জানান। আওয়ামী লীগ সভাপতি লাখো জনতার উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান। এ সময় তার ছোট বোন শেখ রেহানাও প্রধানমন্ত্রীর পাশে উপস্থিত ছিলেন।
উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বক্তব্য শুরু করার আগে প্রধানমন্ত্রী ৭৫ এ শহীদ তার পরিবারের সদস্য ও আত্মীয় স্বজনদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন সোনার বাংলা গড়বেন। ১৯৭২ সালে যখন তিনি দায়িত্ব নেন তখন এদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিলো ৯১ ডলার। যুদ্ধের সময় কৃষি উৎপাদন হয়নি, চারিদিকে অভাব অনটন ছিলো।
মাত্র দুই বছরে তিনি মাথাপিছু আয় ২৭০ ডলারে বৃদ্ধি করেন।
৭৫ এ জাতির পিতাকে হত্যার পরে জিয়া-মোশতাক ক্ষমতায় আসে। তারা মানুষের ভাগ্য বদলাতে পারেনি। তাদের সময়ে মাথাপিছু আয় আরো কমে যায়। বাংলাদেশের যতটুকু  সম্মৃদ্ধি হয়েছে তা হয়েছে আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় আসে তখন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন,  ২০০১ থেকে ২০০৬ ছিলো অন্ধকার যুগ। ঐ সময় এই বাংলাদেশকে তারা দুর্নীতির অভয়ারণ্য করেছিলো। বিগত ১৫ বছর ক্ষমতায় থেকে আমরা দেশের উন্নয়ন করেছি। অন্ধকার যুগ থেকে আলোর পথে ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণ করেছি। আমরা চিকিৎসা সেবা, খাদ্য ও বিনামূল্যে বইসহ সব ধরনের ভাতা নিশ্চিত করেছি। কোভিড সময়ের বন্ধাত্ব দূর করেছি। আমরা ১ কোটি ২ লক্ষ ৭০ হাজার কৃষককে ব্যাংকের মাধ্যমে ভর্তুকি পাঠিয়ে দেই।
এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কৃষিতে বিপ্লব ঘটিয়েছি। আবারো বরিশালকে শস্য ভান্ডার বানানো হবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা পায়রা ও পদ্মাসেতু করেছি, পায়রা বন্দর হয়েছে,  বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, মেরিন একাডেমি হয়েছে। ভোলার গ্যাস  সিএনজি করে আপাতত ঢাকায় নিচ্ছি, ভবিষ্যতে ভোলার গ্যাস বরিশালে আনার ব্যবস্থা করবো। আমরা বিশেষ পেনশন স্কিম করেছি। এখন আমরা আধুনিক দক্ষ যুবসমাজ তৈরিতে কাজ করছি।
বিএনপি জামাতের সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, রেললাইনে আগুন, ক্লিপ খুলে ফেলা এসব কি মানুষের কাজ হতে পারে। তারা মানুষ নয়, তারা সন্ত্রাসী, খুনি ও যুদ্ধাপরাধী। এরা নির্বাচন চায়না, আপনারা ৭ জানুয়ারী ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে নৌকা প্রার্থীদের ভোট দিয়ে বিএনপি জামাতের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।
তিনি বলেন, এই নৌকা নূহ নবীর নৌকা, প্লাবন থেকে এই নৌকা হাজার মানুষকে বাঁচিয়ে ছিলো।
এই নৌকা বঙ্গবন্ধুর নৌকা, এই নৌকা আওয়ামী লীগের নৌকা দাবী করে প্রধানমন্ত্রী বরিশাল বিভাগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে তাদের জন্য নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  মন্ত্রী পদ মর্যাদায় থাকা আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এর সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য আমীর হোসেন আমু, এ্যাড. জাহাঙ্গীর কবীর নানক, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাসিম, গোলাম রাব্বানী চিনু, বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল অব. জাহিদ ফারুক শামীম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, বরিশাল-৬ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল হাফিজ মল্লিক, বরিশাল-২ আসনের আওয়ামী লীগ মনানীত প্রার্থী ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গীর, সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, ভোলার ফজলুল কাদের মজনু মোল্লা, অভিনেতা বরিশালের ছেলে মীর সাব্বির ও অভিনেত্রী তারিন জাহান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মো: ইউনুছ ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ্যাড. আফজালুল করিম।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT