যে কারণে বরিশাল-২ আসনে নৌকা প্রতীকের ২০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী ! যে কারণে বরিশাল-২ আসনে নৌকা প্রতীকের ২০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী ! - ajkerparibartan.com
যে কারণে বরিশাল-২ আসনে নৌকা প্রতীকের ২০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী !

3:25 pm , November 22, 2023

বানারীপাড়া-উজিরপুর
শাকিল মাহমুদ বাচ্চু, উজিরপুর ॥ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকারী দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী বরিশাল বিভাগে সবোর্চ্চ ২০ জন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন বরিশাল -২ আসনটিতে। তারা সকলেই নৌকার মাঝি হতে চান । এক ও অভিন্ন লক্ষ্যে ২০ জন প্রার্থী নৌকা প্রতিকের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম ক্রয় করে জমা দিয়েছেন দলের নীতি নির্ধারকদের কাছে। সকলেই তাকিয়ে আছেন দলের প্রধানের সিদ্ধান্তের দিকে। নানা কারনে এ আসনটিতে নৌকা প্রতিকের মনোনয়ন চাচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রায় ২ ডজন রাজনৈতিক নেতারা। তার মধ্যে দুজন বর্তমান সংসদ সদস্য ও দুজন সাবেক সংসদ সদস্য ও দুজন সাংবাদিক রয়েছেন। দলের মনোনয়ন প্রত্র জমা দিযেছেন তারা হলেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক সংসদ এ্যাড. তালুকদার মো: ইউনুস, বর্তমান এমপি শাহে আলম, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি সৈয়দা রুবিনা মীরা, সাবেক সংসদ মনিরুল ইসলাম মনি, শেরে বাংলার দৌহিত্র আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক উপ-কমিটির সদস্য ফায়জুল হক রাজু, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদেস্য আনিসুর রহমান, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবিদ আল হাসান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুখেন্দু শেখর বৈদ্য, বানারীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম ফারুক, বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মাওলাদ হোসেন সানা, পৌরসভার মেয়র সুভাষ চন্দ্র শীল, আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য হাবিবুর রহমান খান, বিটিভি সাংবাদিক সুজন হালদার, সাংবাদিক সোহেল সানি, আওয়ামী লীগ উপ কমিটির সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, ক্যাপ্টেন মেয়াজ্জেম হোসেন, উজিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হাকিম সন্যামত, ইদ্রিস মোল্লা ও আব্দুল হক , মাজাহারুল হক মিরাজ , সন্ধ্যা নদীর বুক চিরে দু’প্রান্তে উজিরপুর ও বানারীপাড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত বরিশাল -২ আসনটি। জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারী দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে মাঠে রয়েছেন প্রায় ২ ডজন খানেক আওয়ামী লীগ নেতা। এ আসনটির বর্তমান সংসদ মো: শাহে আলমের নানা বিতর্কিত কর্মকান্ডে ও ক্ষমতার দাপটে দিশেহারা নির্বাচনী এলাকার মানুষ। এলাকার নিজ দলের নেতাকর্মীরাও তার কাছ থেকে মূখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। তিনি এখন প্রায় জনবিচ্ছিন হয়ে পরায় এ আাসনটিতে প্রার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ও বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব গোলাম ফারুক। তিনি আরও বলেন নানা নটকীয়তায় ২০১৮ সালে হঠাৎ করে বরিশাল -২ আসনে শাহে আলম দলীয় মনোনয় পান তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়া পর তার নিজ উপজেলা বানারীপাড়ায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের জমি দখল। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর নির্মম নির্যাতন। দু উপজেলায় বেশ কয়েকটি স্থানীয় নির্বাচনে দলের প্রার্থীর নৌকা প্রতিকের বিরুদ্ধে কাজ করা , তার উপস্থিতিতে উজিরপুরে দলের এক সিনিয়র নেতাকে প্রকাশ্যে মারধরের ঘটনা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন বসানো নিয়ে দূর্নীতি ও দু উপজেলা উজিরপুর ও বানারী পাড়ায় দলের নেতা কর্মীদের সাথে বিরোধ ঘটনায় বেশ সমালোচিত হয়েছেন সংসদ সদস্য শাহে আলম। সর্বশেষ তাকে রাজাকার পুত্র আখ্যা দিয়ে তাকে মনোনয়ন না দেয়ার দাবীতে ৩২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধারা বরিশালে সংবাদ সম্মেলন করেন। উজিরপুর উপজেলা আওযামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ সিকদার বাচ্চু বলেন, এ আসনটিতে একজন পরিচ্ছন্ন নেতাকে মনোনয়ন দেয়া হোক। যার কাছে নৌকা প্রতীক থাকবে নিরাপদ। বর্তমান সংসদ সদস্য শাহে আলমের নানা বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারনে এ আসনটিতে মনোনয়ন প্রত্যাশী’র সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশী হিন্দু বৈদ্ধ খ্রিষ্টান পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা ও স্বেচ্ছাস্বেচ্চাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুখেন্দু শেখর বৈদ্য বলেন সাংসদ শাহে আলম’র নির্যাতনের কারনে তিনি নিজে প্রার্থী হয়েছেন। তার মতো হাজারো নৌকা প্রতিকের নেতাকর্মী এমপি শাহে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীদের বেশীর ভাগ নেতারাই মনোনয়ন প্রশ্নে শাহে আলম বিরোধী। বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মাওলাদ হোসেন সানা বলেন, শাহে আলম জীবনে প্রথম প্রার্থী হয়ে নৌকা প্রতিক পেয়ে সহজে জয় লাভ করার পর এমপি হিসাবে তার কর্মকান্ডে দলের অনেক ক্ষতি হয়েছে। সে কারনে আসনটিতে দলের মনোনয়ন প্রত্যশীর সংখ্যা বেড়েছে তবে দলের নীতি নিধারকের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত। একজন ভাল কর্মী বান্ধব নেতাকে দলের মনোনয়ন দেয়ার দাবী জানান তিনি। মনোনয়ন প্রত্যাশী সংরক্ষিত সংসদ সৈয়দা রুবিনা মীরা বলেন, তিনি উজিরপুর ও বানারী পাড়ায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন জনগন তার উপর আস্থা রেখেছেন সে কারনে তিনি সরাসরি ভোট যুদ্ধে প্রার্থী হতে দলের মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT