মৎস্য কর্মকর্তা বিমলের বিরুদ্ধে মাছ সরিয়ে ফেলাসহ নানা অভিযোগ মৎস্য কর্মকর্তা বিমলের বিরুদ্ধে মাছ সরিয়ে ফেলাসহ নানা অভিযোগ - ajkerparibartan.com
মৎস্য কর্মকর্তা বিমলের বিরুদ্ধে মাছ সরিয়ে ফেলাসহ নানা অভিযোগ

3:38 pm , October 17, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ অভিযানে উদ্ধার মাছ সরিয়ে ফেলাসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে বরিশাল জেলার ইলিশ কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার দিনভর অভিযানে জেলে আটক, নৌকা, জাল উদ্ধার করা হলেও উদ্ধার করা মাছ সরিয়ে ফেলেছেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।
অভিযোগকারীরা জানিয়েছেন, কীর্তনখোলা, কালাবদরসহ বিভিন্ন নদীতে যৌথবাহিনীর নেতৃত্বে অভিযান করা হয়। এ সময় ৫ জেলেকে আটক করা হয়। উদ্ধার করা হয় মাছ শিকারেব্যবহৃত ২৩টি নৌকা, বেশ কিছু মা ইলিশ ও জাল। কিন্তু মৎস্য কর্মকর্তা বিমল তার আর্শিবাদপুষ্ট কিছু জেলেদের নৌকা ছেড়ে দিয়েছে। এছাড়াও উদ্ধার করা একটি মাছও জব্দ তালিকায় দেখায়নি। এ অভিযোগ অস্বীকার করে মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস জানান, অভিযানে কোন মাছ উদ্ধার হয়নি। শুধু ৫ জেলেকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ৫০ হাজার মিটার জাল ও ১৫টি নৌকা। আটক জেলেদের ও জব্দ করা জাল-নৌকা বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ভ্রাম্যমান আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে বিমল চন্দ্র দাস একই কর্মক্ষেত্রে রয়েছেন। যার কারনে জেলার সকল অসাধু জেলে ও মাছ ব্যবসায়ীদের সাথে সু-সম্পর্ক রয়েছে। বিমল মা ইলিশ রক্ষাসহ সকল অভিযান করার পূর্বে তাদের জানিয়ে দেয় কোন নদীতে যাচ্ছেন তারা। অসাধু জেলে ও ব্যবসায়ীদের নদীর নিরাপদ স্থানে মাছ শিকারের নির্দেশনাও দেন বিমল। মা ইলিশ রক্ষার অভিযানের মাছ সরিয়ে অসাধু বিক্রেতাদের মাধ্যমে বিক্রি করার অভিযোগ তার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিনের।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT