চিকিৎসকের অবহেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত কিশোরের মৃত্যুর অভিযোগ চিকিৎসকের অবহেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত কিশোরের মৃত্যুর অভিযোগ - ajkerparibartan.com
চিকিৎসকের অবহেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত কিশোরের মৃত্যুর অভিযোগ

3:47 pm , October 15, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পিরোজপুরের স্বরুপকাঠি উপজেলার ডেঙ্গু আক্রান্ত এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শনিবার বেলা ১১ টায় মৃত্যু হয়। কিশোরের মৃত্যুর ঘটনায় তার পরিবার চিকিৎসককে দায়ী করেছে। গত ২৪ ঘন্টায় এ কিশোরের মৃত্যু নিয়ে বরিশাল বিভাগে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১২৬ জনে পৌছেছে। মারা যাওয়া কিশোর মো. আমানুল্লাহ (১৫) স্বরুপকাঠি উপজেলার নান্দুহার গ্রামের কৃষক আব্দুল মজিদের ছেলে। নান্দুহার নিজামিয়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র ছিলো। পাশাপাশি তার বাবার সাথে কৃষি কাজ করতো বলে জানিয়েছেন ভাই মো. শাহিন। তিনি বলেন, এক সপ্তাহ পূর্বে জ্বরে আক্রান্ত হয় আমানুল্লাহ। তখন তাকে স্বরুপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে দুইদিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমানুল্লাহর শরীরে রক্তের প্লাটিলেট ১ লাখ ৬৯ হাজারে ছিলো। চিকিৎসকরা তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। বাড়িতে আনার পর তার অবস্থার অবনতি হয়। তখন দুইদিন পূর্বে আবারো স্বরুপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার দিনগত রাত তিনটার স্বরুপকাঠি হাসপাতালের চিকিৎসকরা দ্রুত বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেয়। টাকা না থাকায় সাথে সাথে নিতে পারেনি। টাকা সংগ্রহ করে শনিবার সকালে বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন। বেলা ১১টার দিকে মৃত্যু হয় আমানুল্লাহ বলে জানিয়েছেন ভাই শাহিন।
তার অভিযোগ স্বরুপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা যদি বাড়ি না পাঠিয়ে এবং দ্বিতীয়বার যাওয়ার পর পরই বরিশাল শেরই বাংলা হাসপাতালে পাঠাতো, তাহলে সঠিক চিকিৎসা পেতো।
এ অভিযোগ সম্পর্কে বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ডা. শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের সর্বোচ্চ সচেতনতা মেনে চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশনা রয়েছে। কোন ধরনের গাফিলতির সুযোগ নেই। কারো বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ এলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি তদন্ত করা হবে বলেও জানিয়েছেন পরিচালক ডা. শ্যামল।
স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে দেয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত ৩৫৯ জন রোগী বিভাগের দুইটি মেডিকেল কলেজ ও ৬ জেলা সদর হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে। এ নিয়ে ৯৬২ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
গত ১ জানুয়ারী থেকে রোববার সকাল ৮ টা পর্যন্ত মোট ২৯ হাজার ১৬১ জন রোগী ভর্তি হয়েছে বিভাগের সরকারী হাসপাতালে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২৮ হাজার ৭৩ জন। মারা গেছেন ১২৬ জন। এর মধ্যে বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে ৯০ জন। এছাড়া পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫ জন, বরিশাল জেলাসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২ জন, পটুয়াখালীতে ২ জন, ভোলায় ৯ জন, পিরোজপুরে ১২ জন, বরগুনায় ৫ জন ও ঝালকাঠিতে এক জনের মৃত্যু হয়েছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT