বরিশালে পাবলিক লাইব্রেরি পূর্বের স্থানে চালুর দাবিতে উন্মুক্ত বই পাঠের অনুষ্ঠান বরিশালে পাবলিক লাইব্রেরি পূর্বের স্থানে চালুর দাবিতে উন্মুক্ত বই পাঠের অনুষ্ঠান - ajkerparibartan.com
বরিশালে পাবলিক লাইব্রেরি পূর্বের স্থানে চালুর দাবিতে উন্মুক্ত বই পাঠের অনুষ্ঠান

3:14 pm , September 17, 2023

পরিবর্তন ডেস্ক ॥ বরিশাল নগরীর বিবির পুকুরের পূর্ব পাড়ে ঐতিহ্যবাহী পাবলিক লাইব্রেরি পুনরায় চালুর দাবিতে উন্মুক্ত বই পাঠের আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত বরিশাল সচেতন নাগরিক এর ব্যানারে এই উন্মুক্ত বই পাশের আসর অনুষ্ঠিত হয়। ঐতিহ্যবাহী পাবলিক লাইব্রেরির পুরনো ভবন চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত বই পাশের অনুষ্ঠানে লাইব্রেরির এডহক কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম বুলবুল, প্রফেসর অধ্যক্ষ আবদুল মোতালেব হাওলাদার, পাঠক দেওয়ান ফখরুল ইসলাম, শিক্ষক অঞ্জলী দত্ত্ব, সমাজ সেবক কাজী মিজানুর রহমান, বেলাল শান্ত, নজরুল ইসলাম খান ও নগর উন্নয়ন পরিষদের সদস্য সচিব কাজী এনায়েত হোসেন বাচ্চু সহ নগরীর কবি, লেখক, সাহিত্যিক এবং বিশিষ্ট নাগরিকরা অংশ নেন।আয়োজকদের অন্যতম উদ্যোক্তা নগর উন্নয়ন পরিষদের সদস্য সচিব, পারলিক লাইব্রেরির এডহক কমিটির সদস্য ও পাবলিক লাইব্রেরি সম্পত্তি রক্ষা উপকমিটির সদস্য কাজী এনায়েত হোসেন শিবলু জানান, ১৮৫৪ সালে বৃটিশ সরকার নগরীর বিবিড়র পুকুরের পূর্ব পাশে বরিশাল পাবলিক লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করে। ১৮৬০ সালে সরকার ১৭.৭০ শতাংশ জমি পাবলিক লাইব্রেরির নামে রেকর্ডভুক্ত করে। অবিভক্ত বাংলার ৩টি লাইব্র্রেরির অন্যমত বরিশাল পাবলিক লাইব্রেরি।স্থান সংকুলানের অজুহাতে ১৯৮৫ সালে বরিশাল পাবলিক লাইব্রেরিটি নগরীর বান্দ রোডের পাশে একটি ভবনে স্থানান্তর করা হয়। মূল শহর থেকে দূরে হওয়ায় কমে যায় পাঠক। কবিতা ও সাহিত্য চর্চা করতে পারছে না বইপ্রেমীরা। আগামী ২০২৪ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে পাবলিক লাইব্রেরি বিবির পুকুরের পূর্ব পাড়ে পুরনো ভবনে পুনরায় চালুর আল্টিমেটাম দেয়া হয় আজকের উন্মুক্ত বই পাশের অনুষ্ঠানে। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলারর হুঁশিয়ারি দেন তারা। বই পাঠের আয়োজন শেষে একই দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন তারা।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT