ঝালকাঠির ছত্রকান্দায় অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দ্রুতগামী বাস উল্টে নিহত ১৭ ॥ আহত ২৫ ঝালকাঠির ছত্রকান্দায় অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দ্রুতগামী বাস উল্টে নিহত ১৭ ॥ আহত ২৫ - ajkerparibartan.com
ঝালকাঠির ছত্রকান্দায় অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দ্রুতগামী বাস উল্টে নিহত ১৭ ॥ আহত ২৫

4:04 pm , July 22, 2023

রিয়াজুল ইসলাম বাচ্চু, ঝালকাঠি প্রতিবেদক ॥ পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলা থেকে বরিশাল যাওয়ার পথে ঝালকাঠি সদর উপজেলার ধাঁনসিড়ি ইউনিয়ন পরিষদের পাশে ছত্রকান্দা নামক এলাকায় বাস উল্টে এ পর্যন্ত ১৭ জনের লাশ পাওয়া গেছে। আহত হয়েছে আরো ২৫ জন। বাসারস্মৃতি পরিবহন নামের এই যাত্রীবাহী বাসটি ছাদে এবং ভিতরে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দ্রুত গতিতে যাবার সময় মোড় ঘোরার সময় উল্টে গিয়ে এই দূর্ঘটনা ঘটে। শনিবার সকাল ১০ টার দিকে বাসটি উল্টে ছত্রকান্দাস্থ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন পুকুরে পড়ে ডুবে যায়।
এই বাসে থাকা ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে আহত যাত্রী আজাদ হোসেন (৫০) জানায় তিনি লক্ষীপুরথেকে ভান্ডারিয়া এসে বরিশালের উদ্দেশ্যে এ বাসে উঠেন। ভিতরে বসা এবং দাড়ানো শতাধিক যাত্রী ছিল। অপর যাত্রী পিয়ারা বেগম (৪৫) জানায় শিশুকন্যা সুমাইয়া (৬)কে নিয়ে চিকিৎসার জন্য বরিশাল যাচ্ছিলেন। এসময় ঘটনাস্থলে এসে উল্টে গিয়ে পুকুরে পড়ে যায়। আমি কোন রকম জানালা থেকে মাথা বের করে মেয়েকে হাতের কাছে পেয়ে টেনে বের হই। তখন দেখি সে মৃত।
ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অপর যাত্রী নাইমুল ইসলাম বলেন, আমি ভান্ডারিয়া থেকে বরিশালের উদ্দেশ্যে এই গাড়িতে যাচ্ছিলাম। গাড়ীর ভিতরে এবং ছাদে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে দূর্ঘটনা স্থল থেকে দ্রুত গতিতে যাওয়ার সময় চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুকুরে পড়ে। আমি ৩/৪ মিনিট পানির নিচে থাকার পর জানালা থেকে বের হই।
উদ্ধার কার্যক্রমের বিষয় ঝালকাঠি দমকল বাহিনীর সদস্য মামুন জানান, আমরা গাড়ীর ভিতরে ডুব দিয়ে এখন পর্যন্ত ১৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করি। আরো কিছু যাত্রীর পা ধরে টানাটানি করলেও তাদের মৃতদেহ আনা যাচ্ছে না। তবে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।
এ বিষয়ে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্মরত মেডিকেল অফিসার ডাক্তার দ্বীন মোহাম্মদ জানান, আমরা দূর্ঘটনার খবর পেয়ে এখানে ১২ জন চিকিৎসক আহতদের দ্রুত চিকিৎসা দিচ্ছি। এ ছাড়া মৃতদের শনাক্ত এবং ডাক্তারী পরীক্ষার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে আহতদের কাটা এবং ব্যথার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সদর হাসপাতালে ঝালকাঠি সদর থানার সেকেন্ড অফিসার গৌতম ঘোষ জানান, আমরা এখানে আনা নিহত এবং আহতদের নাম ঠিকানা পরিচয় এবং তালিকা করা সহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছি।
সদর থানার ওসি মো:নাসির উদ্দীন সরকার জানান, যাত্রীবাহী বাসটি উল্টে পুকুরে পড়ে গেলে এখন পর্যন্ত মৃত ১৭জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। আহত আরো কয়েকজনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তাদের মধ্যেও মুমুর্ষ কয়েকজনকে দেখা গেছে। গাড়ীর ভিতরে কি পরিমাণ লোক আটকে আছে তা ধারণা করা যাচ্ছে না। গাড়িটি উদ্ধার সম্ভব হলে তখন বিস্তারিত বলা যাবে।
ঘটনাস্থল থেকে ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো: মাইনুল ইসলাম জানান, গাড়িটি কেন দূর্ঘটনা কবলিত হয়েছে তা সঠিকভাবে জানা যায় নাই। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার কাজে নিয়োজিত রয়েছে।দূর্ঘটনা গাড়ীর ত্রুটি কারণে না চালকের ত্রুটি অথবা রাস্তার কোন সমস্যার কারণে ঘটনাটি ঘটেছে তা জানা যায়নি। ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পেরণ করা হয়েছে। রাস্তার দু’দিকে প্রায় ১কিলোমিটার রাস্তায় জ্যাম তৈরি হয়। র‌্যাকার দিয়ে দূর্ঘটনা কবলিত গাড়িটি সরিয়ে নেয়ার কাজ চলছে। যাতে জানযট নিরসন করা যায়।
এই দূর্ঘটনার বিষয়ে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক ফারাহ গুল নিঝুম জানান, আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নিহতদের স্বজনদের সাথে আলোচনা করে আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়না তদন্ত ছাড়াই মৃতদেহ হস্তান্তর করা হবে। দূর্ঘটনার বিষয়ে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটিকে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়ছে।
ঝালকাঠি সিভিল সার্জন ডা. এইচএম জহিরুল ইসলাম জানান, আহদের চিকিৎসায় সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। পাশাপাশি নিহতদের মৃতদেহ নেয়ার বিষয়ে স্বজনদের আপত্তি না থাকায় হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। নিহতদের ৩ জনের পরিচয় জানা যায়নি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT