তিন চিকিৎসককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন তিন চিকিৎসককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন - ajkerparibartan.com
তিন চিকিৎসককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন

4:39 pm , July 16, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পর নবজাতক ও প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় তিন চিকিৎসককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে নগরীতে মানববন্ধন করেছে চিকিৎসকরা। রোববার বেলা ১২টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের সামনে চিকিৎসকদের সংগঠন অবস্টেট্রিক্যাল গাইনোকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশ (ওজিএসবি) বরিশাল শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন হয়। এসময় সারাদেশে একের পর এক চিকিৎসক নিগৃহ, নির্যাতন বন্ধ করে নিরাপদ কর্মস্থল তৈরির দাবি জানান চিকিৎসকরা। দাবি না মানলে স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইনের জন্য ধর্মঘট-অনশন করার হুশিয়ারী দেন চিকিৎসকরা। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, শেবাচিম হাসপাতালের গাইনী বিভাগের প্রধান ও ওজিএসবি-এর বরিশাল শাখার সভাপতি ডা. আকবর হোসেন, গাইনী ওয়ার্ডের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ডা. শিখা রানী, ওজিএসবির বরিশাল শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহনাজ শিমুল, শেবাচিম হাসপাতালের উপাধ্যক্ষ ডা. জি এম নাজমুল প্রমুখ। মানববন্ধনে চিকিৎসকরা বলেন, আমরা ২৪ ঘণ্টা নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা করি। এই সেবা দিতে গিয়ে দুর্ঘটনা হতে পারে। যদি চিকিৎসকের অবহেলা হয়ে থাকে তবে তা তদন্ত শেষে আইনানুযায়ী বিচার করা হবে। কিন্তু শুধুমাত্র অভিযোগের ভিত্তিতে চিকিৎসকদের গ্রেফতার করা সম্পূর্ণ অযোক্তিক। এ সময় তারা আরও বলেন, আমরা এখন বাচ্চা ডেলিভারি করাতে ভয়ে থাকি। কারণ কোনো দুর্ঘটনার অভিযোগ উঠলেই আমাদের জেল খাটতে হবে। ভয় নিয়ে তো সেবা দেওয়া যায় না। তাই আমরা এই হয়রানির একটা সুরাহা চাই। গ্রেপ্তারদের মুক্তি দিয়ে সুষ্ঠু তদন্ত করে যে প্রকৃত দোষী তাকে শাস্তির আওতায় আনা হোক। কিন্তু হয়রানি, ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টি করে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত করা হলে আমরা তা মেনে নেব না। আমাদের দাবি না মানলে স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইনের জন্য ধর্মঘট-অনশন করবো।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT