উজিরপুরে একই পরিবারের ৫ জনের কারাদন্ড উজিরপুরে একই পরিবারের ৫ জনের কারাদন্ড - ajkerparibartan.com
উজিরপুরে একই পরিবারের ৫ জনের কারাদন্ড

4:06 pm , May 23, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ উজিরপুর উপজেলা জমি নিয়ে বিরোধে কুপিয়ে জখমের মামলায় ৫ জনকে এক বছর করে কারাদ- দিয়ে আদালত। এছাড়াও একজনকে ৫ হাজার টাকার জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের কারাদ- দেয়া হয়েছে। সোমবার বরিশালের মুখ্যবিচারিক হাকিম মহিবুল হাসান এ রায় দেন। দ-িতদের মধ্যে আবির মৃধাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলার আসামী মিজান বয়াতি, তার ছেলে রিয়াজ বয়াতি, নাজমা বেগম ও কামরুন্নাহার রুনুকে এক বছরের কারাদ- দিলেও উজিরপুর উপজেলার প্রবেশন অফিসারের তত্ত্বাবধানে মুক্তি দেয়া হয়েছে। উজিরপুর উপজেলা প্রবেশন অফিসারকে দুই মাস পর পর আসামীদের কর্মকা- সম্পর্কে প্রতিদেন আদালতে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দ-িত আবির মৃধাউপজেলার দক্ষিন মোড়াকাঠি গ্রামের শাহাদাত হোসেন বাচ্চুর ছেলে। অপর দ-িতদের মধ্যে মিজান বয়াতি হস্তিশু- গ্রামের মন্নান বয়াতির ছেলে, নাজমা বেগম নিজাম বয়াতির স্ত্রী ও রিয়াজ বয়াতি তাদের ছেলে। দ-িত কামরুন্নাহার রুনু দক্ষিন মোড়াকাঠি গ্রামের শাহাদাত হোসেন বাচ্চুর স্ত্রী ও আবির মৃধার মা।
মামলা সুত্রে জানা গেছে, দক্ষিন মোড়াকাঠি গ্রামের বাসিন্দা শাহাজাহান মৃধার সাথে দ-িতদের জমি নিয়ে বিরোধ ছিলো। এ বিরোধের জেরে ২০২১ সালের ৪ জুন শাহজাহান মৃধা হস্তিশু- ঈদগা মার্কেট জামে মসজিদে জুমআর নামাজ শেষে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। বাড়ি পৌছানোর পূর্ব মুহুর্তে দ-িতসহ এনামুলক হক তার উপর হামলা করে। তারা শাহাজাহান মৃধাকে অকথ্য ভাষায় গালি দেয়াসহ আবির মৃধা রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। অন্যান্য আসামীরা তাকে বেধরকভাবে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। তাকে রক্ষায় এগিয়ে যাওয়া শাহাজাহান মৃধার তিন কন্যাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনায় শাহাজাহান মৃধার স্ত্রী হাসিনা মমতাজ জিবু বাদী হয়ে উজিরপুর মডেল থানায় মামলা করে। ২০২১ সালের ২২ জুলাই উজিরপুর মডেল থানার এসআই এনামুল হক শহিদ ৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দেন। বিচারক সাক্ষ্য গ্রহন শেষে রায় দেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT