গঙ্গা বিলাস: বরিশালের সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ সুইজারল্যান্ড ও জার্মানের ২৮ নাগরিক গঙ্গা বিলাস: বরিশালের সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ সুইজারল্যান্ড ও জার্মানের ২৮ নাগরিক - ajkerparibartan.com
গঙ্গা বিলাস: বরিশালের সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ সুইজারল্যান্ড ও জার্মানের ২৮ নাগরিক

3:40 pm , February 8, 2023

আরিফ আহমেদ, বিশেষ প্রতিবেদক ॥ ২৮ জন বয়স্ক ও কর্মজীবন থেকে অব্যাহতি নেয়া বিদেশী নাগরিকের সখ হয়েছিলো নৌ ভ্রমণের মাধ্যমে নৌ-পথে বাংলা ঘুরে দেখার। তারা তাদের ইচ্ছের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতিও পেলেন। ভারত ও বাংলাদেশের যৌথ সহযোগিতায় ভারতীয় শিপিং কোম্পানির গঙ্গা বিলাস নামক দ্বিতল জাহাজে তাদের যাবতীয় আরাম আয়েস ও নিরাপত্তাসহ ভ্রমণের ব্যবস্থা করা হলো বাংলাদেশের জার্ণিপ্লাস ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠানটির সহযোগিতায়। ব্যাস গত ১৩ জানুয়ারী ভারতের বেনারস থেকে ২৮ জনের এই দর্শনার্থী দলটি যাত্রা শুরু করেন। ৪১ জন ক্রুসহ ২৭ জন সুইজারল্যান্ড  এবং একজন জার্মান নাগরিক নিয়ে প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস বাংলাদেশ ভ্রমণে এসেছে। ৮ ফেব্রুয়ারী বুধবার দুপুরে ভারতীয় এই নৌযান গঙ্গাবিলাস বরিশালের কীর্তনখোলা নদী তীরবর্তী মুক্তিযোদ্ধা পার্কের বিআইডব্লিউটিএর ঘাটে এসে পৌঁছে। এসময় বরিশালের জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ সুপার ওয়াহিদুল ইসলাম, ট্যুরিস্ট পুলিশের কুয়াকাটা রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, বিআইডব্লিউটিএর উপপরিচালক আব্দুর রাজ্জাক, জার্ণিপ্লাস ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়কারী তৌফিক রহমান, গাইড কায়েসসহ বরিশালের প্রশাসনের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকরা অতিথিদের স্বাগত জানান।  গত ৩ ফেব্রুয়ারী ভারতের প্রমোদতরী ‘গঙ্গা বিলাস’ সুন্দরবন সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। সেখানে খুলনার কয়রা উপজেলার আংটিহারায় এই গঙ্গাবিলাস পর্যটকদের অনবোর্ড ইমিগ্রেশন করা হয়। তাদের স্বাগত জানাতে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী কয়রায় উপস্থিত ছিলেন। ভারতের উত্তর প্রদেশের বারানসি থেকে বাংলাদেশ হয়ে আসাম পর্যন্ত ৩ হাজার ২০০ কিলোমিটার পাড়ি দেবে নদী পথে বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘযাত্রার বিলাসবহুল এই প্রমোদতরী ‘গঙ্গা বিলাস’। দীর্ঘ এ যাত্রাপথে নৌযানটি ৫১ দিন সময় নেবে বলে জানান ক্রু প্রধান ও জাহাজটির পরিচালক রাজ সিং। তিনি বলেন, তিনটি ডেকসহ এমভি গঙ্গা বিলাস দৈর্ঘ্যে ৬২ মিটার লম্বা ও প্রস্থে ১২ মিটার। এর ২৮টি বিলাসবহুল কামরায় সুইজারল্যান্ডের ২৭ জন ও জার্মানির একজন ভ্রমণ করছেন।
এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি শুক্রবার ভারতের বানারসে আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য আনুষ্ঠানিকতায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে ‘গঙ্গা বিলাস’র বাংলা নদীপথে যাত্রা উদ্বোধন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
ট্যুর অপারেটর কোম্পানি ‘জার্নিপ্লাস’ এর সিইও তৌফিক রহমান বলেন, বক্সার, রামনগর এবং গাজিপুর হয়ে যাত্রা শুরুর অষ্টম দিনে পাটনায় পৌঁছায় প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস। পাটনা থেকেই মূলত কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তারা। ২০ তম দিনে কলকাতার বেনারস পৌঁছালে সেখানে তাদের সম্বর্ধনা দেয়া হয়। সেখান থেকে  ৩ ফেব্রুয়ারী গঙ্গা বিলাস বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এমভি গঙ্গা বিলাসের ট্যুর অপারেটর জার্নি প্লাসের প্রধান নির্বাহী তৌফিক রহমান আরো বলেন, এটি পৃথিবীর সবচেয়ে লং ট্যুর রিভার ক্রুজ। এটি ৩২০০ কিলোমিটার নদীপথ পাড়ি দিচ্ছে। বাংলাদেশ-ভারতের ২৭টি নদী ও ৫০টি পর্যটন কেন্দ্রে যাবে। ঢাকা, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, রংপুর ও কুড়িগ্রামে যাবে জাহাজটি। ৫১ দিনের এ ট্যুরে ১৭ ফেব্রুয়ারি কুড়িগ্রামের চিলমারী হয়ে ভারতের আসামে ঢুকবে।এরপর ১ মার্চ আসামের ধুপড়ি হয়ে আসামের শেষ সীমান্তের দিপড়ুগড়ে গিয়ে নামবেন জাহাজের পর্যটকরা।
বরিশালে পৌঁছে কীর্তনখোলা নদী ও মুক্তিযোদ্ধা পার্ক ঘুরে বিদেশী এই নাগরিকদের দলটি বরিশালের অক্সফোর্ড মিশন চার্চে প্রবেশ করেন। ভ্রমণকারী দলটি রাতে বরিশালে অবস্থান করে সকালে  পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠি ও উজিরপুরের ভাসমান সবজীর হাট  পর্যবেক্ষণ করবেন। এসময় ট্যুরিস্ট পুলিশ তাদের সাথে থাকবেন বলে জানালেন ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ।
বরিশালের জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমরা বরিশালে তাদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি। তারা দুদিন বরিশালে অবস্থান করতে পারেন সে প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। তবে তারা জানিয়েছেন, তারা নিজেদের খাবার খাবেন, তাই তাদের খাবারের চিন্তা আমাদের নেই। সকালে উজিরপুর ও বানারিপাড়ার স্বরূপকাঠিতে বরিশাল ও পিরোজপুর পুলিশ সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT