বরিশালে সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে গেছে বরিশালে সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে গেছে - ajkerparibartan.com
বরিশালে সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে গেছে

3:23 pm , January 23, 2023

প্রতিদিন গড়ে মারা যাচ্ছে ৫ জন ॥ এক বছরে ১৪১৫ শিশুর মৃত্যু

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ বরিশালে সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর হার বেড়েছে। আগাম জন্ম, কম ওজন নিয়ে জন্ম, শ্বাসকস্ট আর খিচুনিতে মারা যাচ্ছে বেশি। বাল্য বিয়ে এবং মায়ের অপুস্টির জন্য এসব হচ্ছে বলে চিকিৎসকদের ধারনা। এটি নিয়ন্ত্রনে পারিবারিক অসচেতনতাকেও দায়ি করা হচ্ছে। বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বিশেষায়িত নবজাতক সেবা কেন্দ্রের সামনে মায়েদের প্রচন্ড ভীড় দেখা যাওয়া এখন সার্বক্ষনিক বিষয়ে পরিনত হয়েছে। কেননা ঝুকিপূর্ণ সদ্যজাত শিশুদের এখানে প্রানে বাঁচানোর চেস্টা চলে। মারাত্মক কম ওজন নিয়ে জন্ম শিশুদের এখানে দেয়া হচ্ছে চিকিৎসা। ৪৬ বেডের এই ওয়ার্ডে শনিবার শিশু ছিলো ১২২ জন। অধিকাংশ শিশুর জন্মই হয়েছে আগাম। এ নিয়ে বিব্রত মায়েরাও। নবজাতকদের ওজন ও রক্তচাপ এতোটাই কম থাকছে যে তাদের ধরে রাখা যাচ্ছে না। কিছু শিশুর ওজন পাওয়া যাচ্ছে ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম। গত এক বছরে এই কেন্দ্রে অপুস্টির শিকার এমন ৯ হাজার শিশুকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে যাদের মধ্যে মারা গেছে ১৪১৫ জন শিশু। পূর্ববর্তী বছরে এমন শিশু মৃত্যুর সংখ্যা ছিলো ৯৮৬ জন। কর্তব্যরত সেবিকারা জানান গ্রামেগঞ্জে জন্ম নেয়া সদ্যজাত শিশুদের যে প্রক্রিয়ায় হাসপাতালে আনা হচ্ছে তা মানহীন হওয়ায় ভর্তির পরক্ষনেই শিশুরা মারা যাচ্ছে। এদের বেশির ভাগই শ্বাসকস্ট নিয়ে ভোগে। হাসপাতালে আনাও হচ্ছে শোচনীয় অবস্থায় বলে জানান শেবাচিম হাসপাতালের বিশেষায়িত নবজাতক সেবা কেন্দ্রের সিনিয়র নার্স যোবায়দা বিবি।
হাসপাতালের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে জানা যায় গত অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর প্রান্তিকে এখানে ৯০ দিনে সর্বোচ্চ ৪১৩ জন সদ্যজাত শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এর আগে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে ৩৯৯ জন, এপ্রিল থেকে জুন প্রান্তিকে ২৯৮ জন এবং জানুয়ারি থেকে মার্চ ৩০৫ জন মারা যায়। সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর জন্য গর্ভজাতকালীন মায়ের অযন্তকে চিহ্নিত করছেন চিকিৎসকরা। তারা গৃহস্থে সন্তান জন্মের বিরোধিতা করে বলেছেন এগুলো বন্ধ করতে কঠোর হতে হবে বলে জানান এই কেন্দ্রের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা বিধান চন্দ্র বিশ্বাস।
তবে হাসপাতালের নবজাতক সেবা কেন্দ্রে শিশু মৃত্যু বৃদ্ধির হারকে স্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান যে আগাম সন্তান জন্মের হার কমানো গেলে কম ওজনের শিশু সংখ্যা কমানো যাবে, ঠেকানো যাবে শিশু মৃত্যুর হার। বরিশালে সদ্যজাত শিশু মৃত্যুর হার নিয়ন্ত্রনে আনতে হাসপাতাল কতৃপক্ষ বিশেষ ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে বলে দাবি করেন বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা এইচ এম সাইফুল ইসলাম।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT