উজিরপুরে প্রায় শতাধিক খাল ও নদী ধংশের পথে উজিরপুরে প্রায় শতাধিক খাল ও নদী ধংশের পথে - ajkerparibartan.com
উজিরপুরে প্রায় শতাধিক খাল ও নদী ধংশের পথে

3:33 pm , January 18, 2023

খালে বাদ দিয়ে আ’লীগ নেতার মাছ চাষ

শাকিল মাহমুদ বাচ্চু, উজিরপুর ॥ উজিরপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা জুড়ে ছোট বড় প্রায় শতাধিক খাল ও নদী হারিয়ে যেতে বসেছে একটি মহলের নানা ফাঁদের কারনে। প্রভাবশালী কয়েকটি মহল বেশ ক’টি খাল দখল করে মাৎস্য চাষ সহ নানা প্রকার প্রতিবন্ধিকতা সৃষ্টি করার কারনে উজিরপুরের মানচিত্র থেকে বেশ কয়েকটি খাল বা নদী হারিয়ে যেতে বসছে। বর্ষা মৌসুমে পানি চলাচল বন্ধ হয়ে বৃষ্টিতে বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্বতারও সৃষ্টি হচ্ছে সে কারনে শাক সবজি সহ অনেক ফসলও নষ্ট হয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। সরকারী এ খাল গুলো উদ্বারের দাবী জানিয়েছেন সাধারন মানুষ। সরোজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখাযায়, উপজেলার জয়শ্রী থেকে সন্ধ্যা নদীর মোহনা দিয়ে বয়ে যাওয়া আটিপাড়া খালটিতে একাধিক বাসের ঘরা দিয়ে মাৎস্য চাষ করছেন এলাকার মানুষ। সতলার বিভিন্ন খালে গড়া দিয়ে মাছ চাষাবাদ করছে একধিক প্রভাবশালীরা যার ফলে দিনে দিনে নব্যতা হারিয়ে খালগুলে মরে যাচ্ছে। জল্লা ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি সরকারী খালের মধ্যে বাঁেশর গড়া দিয়ে মাছের ঘের তৈরী করে মাৎস্য চাষ করছেন প্রভাবশালীরা। সাতলার রাজাপুরের মধ্যেদিয়ে বয়ে যাওয়া সরকারী বাড়ৈ খালে বাধ দিয়ে মাৎস্য চাষ করছেন সাতলার প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খাইরুল বাশার লিটন ও তার সহযোগী সাইমুন বাড়ৈ। তারা প্রায় ৩ কিরোমিটার বাড়ৈ খালটিতে একাধিক জায়গায় বাশের বেড়া ও মাটির বাধ নির্মানের মাধমে প্রতিবন্ধিকতা তৈরী করে মাছের চাষ করেছেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, খালে বাধের কারনে শুকনো মৌসুমে সরকারী এই সিকিস্তির খালের পানি ব্যবহার করতে পারছে না স্থানীয় কৃষকরা। স্থানীয় প্রভাবশালী খাইরুল বাশার লিটন ৩ বছর ধরে সরকারী খালটি দখল করে মাৎস্য চাষ করে কেটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি খাইরুল বাশার লিটন প্রভাবশালী হওয়ার কারনে কেউ কথা বলার সাহস পাচ্ছে না এমন কি প্রশাসনের তরফ থেকেও কোন পদক্ষেপ নেয় হচ্ছে না ফলে বাড়ৈ খালটি নব্যতা হারিয়ে ফেলতে বসছে।স্থানীয় কৃষকরা দখলদারদের হাত থেকে সরকারী বাড়ৈ খালটি উদ্ধারের দাবী জানিয়েছেন কৃষিকাজের জন্য পানি উন্মুক্ত করার প্রয়েজনীয় ব্যাবস্থা নেয়ার দাবী করেন। অভিযুক্ত খাইরুল বাশার লিটন বলেন, প্রধান মন্ত্রী মৎস্য চাষ করতে বলেছেন তাই এটা একটি উন্নায়ন মূলক কাজ। অপর অভিযুক্ত সাইমুন বাড়ৈ অভিযোগ স্বীকার করে বলেন,সবাই এ ভাবে মাৎস্য চাষ করেন বলেই তিনিও এটা করেছেন। উজিরপুর উপজেলা সহকারী কমিসনার (ভুমি) শেখ মো: আলাউল ইসলাম বলেন,তিনি এ উপজেলায় নতুন যোগদান করেছেন বিষয়টি তার জানা ছিলোনা সরকারী খাল দখল করা কারো এখতিয়ার নেই। দ্রুত খোজ খবর নিয়ে ব্যাবস্থা নিবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT