ভোলা চরাঞ্চলের কৃষকদের নতুন কৌশলে সফলতা ভোলা চরাঞ্চলের কৃষকদের নতুন কৌশলে সফলতা - ajkerparibartan.com
ভোলা চরাঞ্চলের কৃষকদের নতুন কৌশলে সফলতা

3:31 pm , January 18, 2023

মো. আফজাল হোসেন, ভোলা ॥ ভোলার মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীর মাঝে জেগে উঠা চরাঞ্চলের শতাধিক গ্রামের কৃষকদের নতুন কৌশলে এনে দিয়েছে সফলতা ।  হতাশা কাটিয়ে মুখে হাসি ফুটেছে তাদের।  দ্বীপ জেলা ভোলার চারিদিক মেঘনা ও তেতুলিয়া বেষ্টিত। এই দুটো নদীর মাঝে জেগে উঠা মাঝের চর, মদনপুর, মেদুয়া, চর নিজাম, চর জহিরুদ্দিন, চর করাতলী, চর কুকরী-মুকরী, চর মোজাম্মেল, চর চটকিমারা ও ঢালচরসহ অন্তত শতাধিক গ্রামে প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও ক্যাপসিকাম, চিচিংগা (রেখা), শসাসহ নানা ধরনের শীতকালীন  সবজির চাষ হয়েছে। জেলায় ৯ হাজার ৪শ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ হয়েছে। যার মধ্যে চরফ্যাসনেই ৪ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। তবে সার, কীটনাশক, বীজ ও তেলের দাম বেশি থাকায় খরচ বেশি পড়েছে বলে কৃষকরা জানিয়েছেন। গত বছরের চেয়ে অনেক কম দাম পাচ্ছে চরাঞ্চলের এসব কৃষকরা। তাই লাভবান হতে আবিষ্কার করেছে নতুন কৌশল। রেখা বিক্রি করতে গিয়ে বাঁকা সবজিতে দাম পাচ্ছে তুলনামুলক কম। তাই বাঁকা রেখা সোজা করতে কৌশল নিয়েছেন কৃষকরা। মেঘনার মধ্যবর্তী মাঝের চর এলাকার কৃষক মো. সাহাবুদ্দিন জানান,  তার মতে এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতেই তারা রেখার নিচে মাটিসহ ছোট পলিথিন ঝুলিয়ে দিচ্ছে যাতে রেখাটি সোজা হয়। এতে সফলতাও এসেছে। বাজারে বিক্রিতে পাচ্ছে ভালো দাম। একই কথা বলেন, দৌলতখান উপজেলার মেঘনা নদীর মাঝে জেগে উঠা চর মদনপুরের কৃষক মো. কবির। তিনি জানান, এভাবে সোজা করতে গিয়ে তাদের খরচ হলেও সবজি নষ্ট হচ্ছে কম। পোকার হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে। বিক্রি ভালো আর দাম ভালো পাওয়ায় সকলেই এখন এই নতুন কৌশলে এগিয়ে যাচ্ছে। এর ফলে সফলতা এসেছে।
তবে সার ও কীটনাশকের দাম বেশি হওয়ায় হতাশায় কৃষকরা। এসব কৃষকদের দাবী সরকার কৃষকদের কথা চিন্তা করে সার ও কীটনাশকের দাম নির্ধারন করলে আরো লাভবান হতে পারবেন তারা। একই সাথে কৃষি কর্মকর্তাদের সার্বিক সহযোগীতা এবং পরামর্শ চাচ্ছেন তারা। অভিযোগ হচ্ছে এসব চরাঞ্চলে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা দায়িত্বে থাকলেও বাস্তবে তারা আসেন না। মাসে একবার গেলেও পারেন না গেলেও পারেন জানালেন কৃষকরা।  ভোলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো.  হাসান ওয়ারিসুল কবীর বলেন,সবকিছুর পরেও ভালো ফলন হয়েছে, দাম ভালো পাচ্ছে কৃষকরা। আমনের যেমন বাম্পার ফলন পেয়েছে তেমনি সবজিতেও বাম্পার ফলন হয়েছে। সার  ও বীজ সরকারী রেটে বিক্রি হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, কীটনাশক বিক্রি করছে কোম্পানী গুলো তাদের নির্ধারিত রেটে। সার বিক্রিতে অনিয়মের অভিযোগ থাকলে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি। কৃষি কর্মকর্তাদের সহযোগীতা পাচ্ছে না এমন অভিযোগের জবাবে বলেন, না পাওয়ার কথা নয়। প্রতিটি ইউনিয়নে ৩জন উপসহকারী কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT