শেবাচিম হাসপাতাল থেকে চুরি করা শিশুসহ নারী আটক শেবাচিম হাসপাতাল থেকে চুরি করা শিশুসহ নারী আটক - ajkerparibartan.com
শেবাচিম হাসপাতাল থেকে চুরি করা শিশুসহ নারী আটক

3:24 pm , January 18, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ড থেকে চুরি করা শিশু স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালের তৃতীয় তলার ৩ নম্বর ইউনিটের ৬ নম্বর শয্যা থেকে একদিন বয়সী শিশু ইমাম মাহাদীকে চুরি করা হয়। শিশুকে নিয়ে পালানোর সময় এক নারীকে আটক করা হয়েছে। ওই নারী হলেন বরিশাল সদর উপজেলার চরমোনাই ইউনিয়নের চরহোগলা গ্রামের মো. আমির বিশ্বাসের স্ত্রী শাহিনুর বেগম (৩৫)।  শিশু ইমাম মাহাদী নগরীর কাউনিয়া বিসিক এলাকার মীরা বাড়ির বাসিন্দা হেলাল বেপারীর ছেলে।
শিশুর ফুফু রুনা বেগম বলেন, মঙ্গলবার অস্ত্রপচারের মাধ্যমে মাহাদীর জন্ম হয়। এটা ভাই ও ভাবীর প্রথম সন্তান। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি ভাবীর পাশে ভাতিজাকে রেখে বাথরুমে যান। তার ভাবী ঘুমিয়ে পড়ে। এ সুযোগে চোর ভাতিজাকে নিয়ে যায়।
রুনা বেগম বলেন, বাথরুম থেকে এসে ভাতিজাকে না পেয়ে দৌঁড়ে নার্সসহ অন্যান্য কর্মচারীদের কাছে বিষয়টি জানান। অন্যান্যরা হাসপাতালের বিভিন্নস্থানে খুঁজতে থাকেন। হাসপাতালের নিচে নেমে শুনতে পান আমানতগঞ্জে একটি শিশুসহ নারীকে আটক করা হয়েছে।
শিশুকে উদ্ধার করা শাহাদাত হোসেন মাসুম বলেন, নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে  সচিব পদে চাকুরী করেন তিনি। নগরীর ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পানি ট্যাংকি এলাকায় বাসায় যাওয়ার পথে দেখতে পান এক নারী শিশুকে বুকের মধ্যে আড়াল করে যাচ্ছে। তখন তার সন্দেহ হলে ওই নারীকে চ্যালেঞ্জ করেন। তখন নারী শিশুকে রাস্তার উপর ফেলে পালানোর চেষ্টা করে। তখন শিশুকে এক ছোট ভাইয়ের কাছে রেখে নারীকে আটক করে ৯৯৯ এ কল করা হয়। মহানগর পুলিশের আমানতগঞ্জ পুলিশ ফাড়ি থেকে একটি দল এলে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।
আমানতগঞ্জ পুলিশ ফাড়ির এসআই লোকমান হোসেন জানান, শাহিনুর জানিয়েছে তার মেয়ে নি:সন্তান। তাই হাসপাতাল থেকে একটি শিশু কিনতে এসেছিলেন। হাসপাতাল থেকে এক নারী শিশুকে তার কাছে দিয়েছেন। যে নারী  শিশু দিয়েছে, তাকে কোন টাকা দেননি। তার পরিচয় জানাতে পারেননি আটক নারী।
কোতয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ বারী বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার স্বীকারোক্তি সত্যতা রয়েছে। তার দেয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। তার দেয়া তথ্যের সত্যতা থাকলেও এটা বেআইনী। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আজিমুল করিম বলেন, ওই নারী পেশাদার শিশু চোর চক্রের সাথে জড়িত কিনা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। তাকে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে। ঘটনার সাথে অন্য কেউ জড়িত রয়েছে কিনা সেই তথ্য উদ্ধারের চেষ্টা করা হবে। এ ঘটনায় মামলা হবে বলে ওসি জানিয়েছেন।
শিশুর মা কাকলী বেগম শিশু সন্তানকে ফিরে পেয়ে পুলিশ ও উদ্ধার করা স্থানীয়দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। অস্ত্রপচারের প্রভাব না কাটায় এখনো অর্ধচেতন অবস্থায় রয়েছেন কাকলী বেগম।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT