চলাচলের পথ দখল নিতে হামলায় নারী শিশুসহ আহত ৭ চলাচলের পথ দখল নিতে হামলায় নারী শিশুসহ আহত ৭ - ajkerparibartan.com
চলাচলের পথ দখল নিতে হামলায় নারী শিশুসহ আহত ৭

3:19 pm , January 13, 2023

চরফ্যাসন প্রতিবেদক ॥ ভোলার চরফ্যাসনে বসত বাড়ির চলাচলের পথে দখল নিতে দফায়দফায় হামলা ও মারধর বসত বাড়ির চলাচলের পথের সীমনা প্রাচীর ভেঙে গুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষ মোঃ আনিছ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। চলাচলের পথ জবর দখলে বাধা দেয়া প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের পরিবারের ৪ নারীসহ ৭ জন আহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকালে পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পৃথক পৃথক দিন তিন দফায় হামলা ও মারধরের ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মোঃ শিব্বির জানান,প্রতিবেশী মোঃ আনিছ মাঝি তাদের বসত বাড়ির ২০ বছরের চলাচলের পথের মালিকানাদাবী করে উচ্ছেদের হুমকি দিয়ে আসছিলেন। গত ২২ ডিসেম্বর ওই চলাচলের পথে ঘর তুলে জবর দখলের চেষ্টা চালান এবং পথে কাঁটা দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে থানা পুলিশকে জানালে চরফ্যাসন পুলিশ প্রতিপক্ষের দেয়া কাটার বেড়া তুলে অপসারন করে দেন। পরে গত ১০ জানুয়ারী ফের প্রতিপক্ষ আনিছ ও তার পরিবারের সদস্যরা তাদের চলাচলের পথ জবর দখলের চেষ্টা চালিয়ে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে মারধর করেন। এঘটনায় চরফ্যাসন থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে থানা পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় পরে দিন ১১ জানুয়ারী তার মা উম্মে কুলসুম বাদী হয়ে ১০জনকে আসামী করে চরফ্যাসন জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরপরই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন প্রতিপক্ষ আনিছসহ তার পরিবারের সদস্যরা। গতকাল শুক্রবার প্রতিপক্ষ আনিছ মাঝির নেতৃত্বে তার পরিবারের সদস্যরা তাদের চলাচলে পথে দেয়া সীমনা প্রাচীর ভেঙে জবর দখলের চেষ্টা চালন। এসময় তার পরিবারের সদস্যরা বাধা দিলে মোঃ আনিছের নেতৃত্বে মহিউদ্দিন, মোঃ শুভ, মোঃ হা-মিম, মোঃ মোকতার , মোঃ মহিউদ্দিন ও জামালসহ ২৫/২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ চক্র তাদের ওপর হামলা চালিয়ে মারধর করেন। এসময় প্রতিপক্ষের হামলায় তাদের পরিবারের ৪ নারীসহ ৭ জন আহত হয়েছেন। প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন।এঘটনায় তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে চরফ্যাসন থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। অভিযোগ প্রসঙ্গে প্রতিপক্ষ মোঃ আনিছ মাঝি জানান, শিব্বির পরিবার তাদের জমি জবর দখল করে ওই জমি দিয়ে চলাচল করেছেন। হামলা, সীমনা প্রাচীর ভাঙচুর ঘটনা সঠিক নয়। কথার কাটাকাটি হয়েছে। চরফ্যাসন থানার ওসি মোহাম্মদ মোরাদ হোসেন জানান, ভোক্তভোগি পরিবারকে অভিযোগ দেয়ার জন্য আসতে বলা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT